রাত ১১:১১ ; শুক্রবার ;  ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮  

বিজয় মেলায় প্রাণের উচ্ছ্বাস

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বিনোদন প্রতিবেদক।।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে চ্যানেল আই প্রতিবারের মতো নিজস্ব প্রাঙ্গণে আয়োজন করেছে ‘বিজয় মেলা’। যেখানে মিলিত হয়েছিলো সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ সহ বীর মুক্তিযোদ্ধারা। মেলায় এসে তারা বলেছেন চ্যানেল আই- এর এ দিনটির জন্যই প্রতিবছর অপেক্ষা করেন। এ মেলায় তারা খুঁজে পান হারানো স্মৃতি, মিলিত হন বিজয়ের উচ্ছাসে।

১৬ ডিসেম্বর বুধবার সকাল ১০টা ১০ মিনিটে চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে বিজয় মেলার উদ্বোধন হয়। এ সময় মেলা মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন কামাল লোহানী, আতাউর রহমান, সৈয়দ হাসান ইমাম, নাসির উদ্দিন ইউসুফ, মেজর কামরুল হাসান ভুঁইয়া, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী রূপা ফরহাদ, মালা খুররম ও শাহীন সামাদ, ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, চ্যানেল আই-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, পরিচালক ও বার্তা প্রধান শাইখ সিরাজ, গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাজীব শেঠি প্রমুখ।

লাল সবুজে বর্ণিল মঞ্চ, তোরণ ও ফেস্টুনে সুসজ্জ্বিত ছিলো মেলা প্রাঙ্গণ। মেলায় ছিলো ৭ বীরশ্রেষ্ঠ- এর নামে ৭টি স্মারক স্তম্ভ এবং ১১ সেক্টরের স্মরণে ১১টি নির্দিষ্ট স্থান। মেলার স্টলগুলোতে সজ্জিত ছিল মুক্তিযুদ্ধের নানা দলিল, গ্রন্থমালা, আলোকচিত্র, চলচ্চিত্র, ডায়েরি, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যেবাহী ক্ষুদ্র ও কুঠিরশিল্পের সামগ্রী ইত্যাদি।

বিজয় মেলায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক চিত্রাংকন করেছেন বীরেণ সোম, আবদুল মান্নান, রনজিৎ দাস, ফরিদা জামান, রেজাউন নবী প্রমুখ। শিশুশিল্পীরাও বিভিন্ন বিষয়ের উপর চিত্রাংকন করেছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত এবং বিভিন্ন সময়ে আগত অতিথিরা তাদের স্মৃতির ডায়েরি থেকে মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ের স্মৃতিচারণ করেন। অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন ফেরদৌস আরা, সাদী মহম্মদ, মাহমুদুজ্জামান বাবু, কিরণ চন্দ্র রায়, খুরশীদ আলম, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী রূপা ফরহাদ, মালা খুররম ও শাহীন সামাদ, সেরাকণ্ঠ ও ক্ষুদে গানরাজের শিল্পীরা। নৃত্য পরিবেশন করেছে ভোরের পাখি নৃত্যকলা, নটরাজসহ বিভিন্ন দলের সদস্যরা। আবৃত্তি করেছেন সৈয়দ হাসান ইমাম।

বিজয় মেলা পরিচালনা করেছেন আমীরুল ইসলাম ও শহিদুল আলম সাচ্চু। উপস্থাপনা করেছেন মৌসুমী বড়ুয়া ও দিলরুবা সাথী। বুধবার বিকেল দু’টা পর্যন্ত মেলাটি সরাসরি সম্প্রচার করেছে চ্যানেল আই।

/এমএম/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।