রাত ০৯:১৩ ; বৃহস্পতিবার ;  ১৭ অক্টোবর, ২০১৯  

আজ সারাদিন উদযাপন হোক বিজয়ের আনন্দে

প্রকাশিত:

লাইফস্টাইল ডেস্ক।।

বিজয়ের সকাল হোক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠে ছায়ানট ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থিদের সঙ্গে জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে। যারা প্রতিবারের মতো স্মৃতিসৌধে যাবেন তাদের কথা আলাদা। কিন্তু অনেকেই অতদূর যেতে পারবেন না। তবে একবার ছায়ানটের আয়োজনে গিয়ে গলা মিলিয়ে আসতে পারেন।  

বাংলাদেশ পুলিশের আয়োজনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা স্তম্ভের বেদিতে রয়েছে নানা আয়োজন। গত ১৫ ডিসেম্বর শুরু হওয়া এই আয়োজন চলবে ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ইতোমধ্যে আলোকচিত্র প্রদর্শনী, চলচ্চিত্র পরিবেশন হয়েছে। ১৬ তারিখ বিজয়ের গল্প বলা। ১৭ তারিখ কনসার্ট, ১৮ তারিখ মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আতশবাজি প্রদর্শনী।

চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা

পরিবেশ চিত্রাংকন ও সাধারণ জ্ঞান প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা) পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা) ও ধানমন্ডি কচিকন্ঠ হাই স্কুলের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এই প্রতিযোগিতা আগামীকাল ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫, বুধবার, সকাল ৯:৩০মিনিটে ধানমন্ডি কচিকন্ঠ হাই স্কুলে অনুষ্ঠিত হবে । আয়োজনটি সবার জন্য উন্মুক্ত চাইলেই অংশ নিতে পারেন।

বিশ্বব্যাপি কোটি কণ্ঠে জাতীয় সঙ্গীত

গণজাগরণ মঞ্চের আয়োজনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত হচ্ছে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন ও নানা বর্ণিল আয়োজন। সবার জন্য উন্মুক্ত এই আয়োজনে ঢুঁ মারতে পারেন একবেলা। সকাল ১১টায় এই আয়োজনের উদ্বোধন হবে।

সেনাবাহিনীর যত আয়োজন

ঢাকায় প্রত্যুষে ৩১ বার তোপধ্বনি স্থান: জাতীয় প্যারেড স্কয়ার, পুরাতন বিমান বিন্দর (রানওয়ের দক্ষিণ প্রান্ত) ঢাকা। সময়: সকাল ৬টা ৩০ মিনিট থেকে ৬টা ৩৫ মিনিট।

বিজয় দিবস কুচকাওয়াজ (উপস্থিত থাকবেন মহামান্য রাষ্ট্রপতি এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী)    স্থান: জাতীয় প্যারেড স্কয়ার, ঢাকা । সময়: সকাল ১১টা।  

সেনাবাহিনীর বাদক দল কর্তৃক বাদ্য পরিবেশন স্থান: সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজা এলাকা। সময়: বেলা ২টা থেকে বিকাল ৪টা।

নৌ বাহিনীর বাদক দল কর্তৃক বাদ্য পরিবেশন স্থান: সদরঘাঁট এলাকা। সময়: বেলা ২টা থেকে বিকাল ৪টা। বিমান বাহিনীর বাদক দল কর্তৃক বাদ্য পরিবেশন   স্থান: মিরপুর ২ নং জাতীয় ষ্টেডিয়াম এলাকা। সময়: বেলা ২টা থেকে বিকাল ৪টা।

সেনা, নৌ, বিমান বাহিনী ও অন্যান্য সংস্থার সম্মিলিত বাদক দলের বাদ্য পরিবেশন। স্থান: সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। সময়: বেলা ২টা থেকে বিকাল ৪টা।

নৌবাহিনীর জাহাজসমূহ সর্বসাধারণের পরিদর্শনের জন্য উন্মুক্ত। স্থান: ঢাকা সদর ঘাঁট, নৌ ইউনিট পাগলা নেভাল জেটি, নারায়নগঞ্জ; নেভাল জেটি, নিউমুরিং, চট্টগ্রাম; বিআইডব্লিউটিএ রকেট ঘাঁট, খুলনা; নেভাল বার্থ,  দিগরাজ, মংলা, বাগেরহাট ও বিআইডব্লিউটিএ জেটি, রকেট ঘাঁট, বরিশাল। সময়: বেলা ২টা থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত।

সম্মান জানান মুক্তিযোদ্ধাকে

ঢাকা শহরে বসবাসরত মুক্তিযোদ্ধাদের বিশেষ সম্মাননা দেবে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন। মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান জানাতে আপনিও শরীক হতে পারেন আপনার সন্তানকে নিয়ে।

মুক্তিযুদ্ধ যাদুঘরের

খেলা দেখুন

সাবেক জাতীয় দলের ফুটবলাররা খেলবেন বিজয় দিবস প্রীতি ফুটবল ম্যাচ। ১৬ তারিখ বেলা তিনটায় অনুষ্ঠিত হবে কমলাপুর স্টেডিয়ামে।

প্রতি বছরের মতো এবারেও বিজয় দিবসে মাঠে গড়াচ্ছে প্রদর্শনী ক্রিকেট ম্যাচ। মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হওয়া ২ ক্রিকেটারের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই এই ম্যাচের আয়োজন করে আসছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বিজয় দিবস উপলক্ষে মিরপুর স্টেডিয়ামে ২০ ওভারের প্রদর্শনী ম্যাচটি শুরু হবে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়।

বাংলা একাডেমিতে ঘুরে আসতে পারেন

বিকেল ৪:০০মিনিট একাডেমির নজরুল মঞ্চে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে । অনুষ্ঠানে  স্বাগত ভাষণ প্রদান করবেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান। মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলা একাডেমি শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন কবি পিয়াস মজিদ। আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর-এর ট্রাস্টি মফিদুল হক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দীন ইউসুফ, অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী এবং নিশাত জাহান রানা। সভাপতিত্ব করবেন বাংলা একাডেমির সভাপতি ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। সন্ধ্যায় রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

*** এছাড়াও টিএসসি, রবীন্দ্র সরোবর, বনানী মাঠ কলাবাগান মাঠসহ নানা এলাকায় রয়েছে নানা আয়োজন। ঘুরে বেড়ান বিজয়ের আনন্দে।

/এফএএন/

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।