রাত ১১:৪৮ ; বৃহস্পতিবার ;  ২১ মার্চ, ২০১৯  

সন্ত্রাসবাদবিরোধী মুসলিম সামরিক জোটে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বিদেশ ডেস্ক।।

সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় ৩৪টি মুসলিম প্রধান দেশের এক সমন্বিত সামরিক জোট গঠনের ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) সৌদির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সিতে (এসপিএ) প্রকাশিত এক যৌথ বিবৃতিতে এ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এই জোটের মধ্যে বাংলাদেশও রয়েছে বলে জানিয়েছে রাশিয়ার সংবাদ সংস্থা রাশিয়ান টাইমস (আরটি)।

ওই বিবৃতিত বলা হয়, ৩৪ দেশের ওই সামরিক জোট রিয়াদ থেকে সামরিক অভিযান পরিচালনা করবে এবং সমন্বয় করা হবে। জোটের সদস্য দেশগুলোর মধ্যে আরব রাষ্ট্রগুলো, দক্ষিণ এশিয়া আর আফ্রিকার দেশগুলো রয়েছে। তবে সৌদি আরবের এই জোটে নেই ইরান।

বাংলাদেশ ছাড়া জোটে অন্য দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে সৌদি আরব, জর্ডান, আরব আমিরাত, পাকিস্তান, বাহরাইন, বেনিন, তুরস্ক, শাদ, টোগো, তিউনিসিয়া, জিবুতি, সেনেগাল, সুদান, সিয়েরা লিওন, সোমালিয়া, গেবন, গিনি, ফিলিস্তিন, কমোরোস, আইভরিকোস্ট, কুয়েত, লেবানন, লিবিয়া, মালদ্বীপ, মালি, মালয়েশিয়া, মিসর, মরক্কো, মৌরিতানিয়া, নাইজার, নাইজেরিয়া, ইয়েমেন।

প্রসঙ্গত, বেশ কিছুদিন হলো ইরাক ও সিরিয়াভিত্তিক সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর বিরুদ্ধে সৌদি আরবের কঠোর ভূমিকা না থাকার ব্যাপারে সরব হয়ে ওঠে যুক্তরাষ্ট্র। এই প্রেক্ষাপটে এক বিরল সংবাদ সম্মেলনে মঙ্গলবার সৌদি প্রতিরক্ষামন্ত্রী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ইরাক, সিরিয়া, লিবিয়া, মিসর এবং আফগানিস্তানে সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় সামরিক উদ্যোগ নেওয়ার কথা জানান। তবে সেই সামরিক অভিযান কেমন হবে, তা নিয়ে কোনও স্পষ্ট ধারণা দেননি তিনি।

ইসলামিক স্টেটের মতো গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে বর্তমানে বেশ কয়েকটি জোট রয়েছে। মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটে ৬৫ দেশ রয়েছে। আর সিরিয়া সরকারের পক্ষে বিমান হামলা চালাচ্ছে রাশিয়া। ইরাক ও সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে সক্রিয় সামরিক ভূমিকা নেওয়ার জন্য মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর ওপর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চাপ রয়েছে।

/এএ/এসটি/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।