রাত ০৩:১৬ ; রবিবার ;  ১৬ জুন, ২০১৯  

বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীরের শাহাদাত বার্ষিকী পালিত

প্রকাশিত:

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি।।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয় বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীরের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী।  সোমবার দিবসটি উপলক্ষে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ৯টায় রেহাইচরে বীরশ্রেষ্ঠ’র স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন ও জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিনের কার্যক্রম শুরু হয়।

এ সময় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর কবীর,পুলিশ সুপার বশির আহম্মদ ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সিরাজুল ইসলাম বীরশ্রেষ্ঠ’র স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। পরে তার রুহের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

অন্যদিকে,দুপুরে পবিত্র সোনামসজিদ প্রাঙ্গণে সমাহিত বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীরের কবরস্থানে কোরআনখানি,ফাতেহা পাঠ,আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের সময় ৭ নং সেক্টরের সাব-সেক্টর কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) গিয়াস উদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী (বীর বিক্রম)।

৪৪ বছর আগে দেশ শত্রুমুক্ত হওয়ার দুইদিন আগে ৭নং সেক্টরের অধীন চাঁপাইনবাবগঞ্জের মহানন্দা নদীর তীরে রেহাইচরে সম্মুখ যুদ্ধে পাক হানাদার বাহিনীর হাতে বীরের মত নিহত হন জাতির এই সূর্য সন্তান।

তার শেষ ইচ্ছানুযায়ী পবিত্র সোনামসজিদ প্রাঙ্গনে ৭নং সেক্টরের প্রথম সেক্টর কমান্ডার মেজর নাজমুল হকের পাশে তাকে লাশ দাফন করা হয়।

বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলার রহিমগঞ্জ গ্রামের আব্দুল মোতালেব হাওলাদারের মেধাবী ছেলে ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর ’৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রাক্কালে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী ত্যাগ করে। পরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দুর্গম পাহাড়ি এলাকা অতিক্রম করে ভারতের মালদহ জেলার মোহদিপুরে অবস্থিত মুক্তিবাহিনীতে যোগ দেন। মুক্তিযুদ্ধে তিনি ৭নং সেক্টরের অধীনে চাঁপাইনবাবগঞ্জে  দায়িত্ব পালন করেন।

/জেবি/এফএস/

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।