বিকাল ০৪:৪৮ ; বৃহস্পতিবার ;  ১৭ জানুয়ারি, ২০১৯  

হোসেন খালেদ ডিসিসিআই’র সভাপতি পুনঃনির্বাচিত

প্রকাশিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ॥

হোসেন খালেদ ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি’র (ডিসিসিআই) সভাপতি হিসেবে পুনঃনির্বাচিত হয়েছেন।  রাজধানীর মতিঝিলের ডিসিসিআই মিলনায়তনে শনিবার অনুষ্ঠিত বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) তিনি ডিসিসিআই’র সভাপতি পুনঃনির্বাচিত হন। ডিসিসিআই থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সাধারণ সভায় হুমায়ুন রশিদ ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি হিসেবে ও আতিক-ই-রাব্বানী সহ-সভাপতি হিসেবে পুনঃনির্বাচিত নির্বাচিত হয়েছেন। তাদেরকে ২০১৬ সালের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দেওয়া হয়।

এদিকে ২০১৬, ২০১৭ এবং ২০১৮ মেয়াদের জন্য নবনির্বাচিত পরিচালকরা হলেন- কামরুল ইসলাম, মামুন আকবর, মো. আলাউদ্দিন মালিক, রিয়াদ হোসেন এবং সেলিম আকতার খান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সভাপতি হোসেন খালেদ আমেরিকার ওহাইও রাজ্যের টোলেডো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হিসাববিজ্ঞানে বিবিএ ও আমেরিকার টেক্সাস এঅ্যান্ডএম ইউনিভার্সিটি থেকে আন্তর্জাতিক ব্যাংকিং বিষয়ে এমবিএ ডিগ্রি অর্জন করেন। হোসেন খালেদ দি সিটি ব্যাংক লিমিটেডের পরিচালক পদে দায়িত্বরত রয়েছেন। বাংলাদেশ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড ও সিটি ব্রোকারেজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এবং বিডি ফাইন্যান্স ক্যাপিটাল হোল্ডিংস লিমিটেড, বিডি ফাইন্যান্স সিকিউরিটিজ লিমিটেডের ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

হোসেন খালেদ আনোয়ার গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ, এজি অটোমোবাইলস লিমিটেড ও আনোয়ার জুট স্পিনিং মিলস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১৫, ২০০৭ ও ২০০৮ মেয়াদে একই চেম্বারের সভাপতি, ২০০৬ সালে ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি এবং ২০০২-২০০৩ সালে সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি হুমায়ুন রশিদ এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন লিমিটেড (ইপিজিএল)-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। তিনি ১৯৮২ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন।

সহ-সভাপতি আতিক-ই-রাব্বানী দি কম্পিউটার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং আতিক-রাব্বানী কনসালন্টিং-এর প্রিন্সিপাল। তিনি ১৯৭৯ সালে যুক্তরাজ্যের ব্র্যাডফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরিসংখ্যানে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৮৯ সালে তিনি ইন্সটিটিউট অব চাটার্ড একাউনটেন্টস-বাংলাদেশ থেকে সিএ ডিগ্রি লাভ করেন।

/এসআই/ এএ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।