বিকাল ০৪:৩২ ; মঙ্গলবার ;  ২৩ এপ্রিল, ২০১৯  

রজনীকান্ত যেন এক মিথ!

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বিনোদন ডেস্ক।।

কেউ আদর করে ডাকে তালাইবা। কেউ বলে দেবতা। যা অবিশ্বাস্য, তার পাশে শুধু ‘রজনীক্নান্ত’ শব্দ টুকে দিলেই দিবলোকের মতো বিশ্বাস করে অনেকে। আজও অনেক ভারতীয় সুপারস্টার ছবি শুরুর আগে দেখা করেন তার সঙ্গে। সম্মান, আস্থা, আর ভারতীয় মিথের সবচেয়ে বড় তারকা দক্ষিণী নায়ক রজনীকান্তের জন্মদিন আজ (১২ ডিসেম্বর)। দিনভর ভারতীয় মিডিয়া মুখর হয়েছে আছে তার সম্মানে। এ মহানায়কের দু’ছত্র নিচে ‍তুলে দেওয়া হলো-  

 

ছিলেন বাস কন্ডাক্টর
শুরুতে ব্যাঙালুরুতে বাস কন্ডাক্টর হিসেবে কাজ করতেন এ সুপারস্টার। পরে মাদ্রাজ ফিল্ম ইনস্টিটিউটের শরণাপন্ন হন তিনি। তবে তাকে সমর্থন দেয়নি পরিবার। কষ্টকর দিনগুলোতে রজনীকান্তকে সহায়তা করেন তার বন্ধু রাজবাহাদুর। পরে একটি মঞ্চ নাটকে অভিনয় করার সময় তামিল পরিচালক বালাচন্দ্রের দৃষ্টিগোচর হন তিনি। এরপর পথ চলা শুরু।

রজনীকান্তের ভক্তরাও যেন তারকা
শুধু রজনীকান্ত নয়, তার ভক্তরা আজ সুপাস্টার। তাদের নিয়ে একটি ডকুমেন্টারি ফিল্ম তৈরি করা হয়েছে। নাম ‘ফর দ্য লাভ অব অ্যা ম্যান’। মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক জয়জিত পালের প্রযোজনায় তৈরি করা এ ডকুমেন্টারিতে রজনীকান্তের জন্য গড়ে ওঠা ১ লাখ ৫০ হাজার ফ্যান ক্লাবের তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। তামিল নাড়ুর প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে শুরু করে জাপানের বড় বড় শহরে ছড়িয়ে আছে এ ফ্যান ক্লাবগুলো।

ভক্তের সংখ্যা কত
রজনীকান্তের ভক্ত সংখ্যা কত? এ প্রশ্নের উত্তর দেওয়া বোধহয় খুবই কঠিন। ভক্তরা এ সুপারস্টারকে এতটাই ভালোবাসেন যে তিনি অনেকের কাছে পূজনীয়। তার ‘লিংগা’ ছবিটি যখন মুক্তি পায়, তখন তা দেখার জন্য অস্থির হয়ে ওঠেন এক গুরুতর কিডনি আক্রান্ত রোগী। ৫৬ বছর বয়সী এই ভক্ত ছবিটি দেখার জন্য এতটাই ব্যাকুল হয়ে ওঠেন যে, হাসপাতাল থেকে পালিয়ে সিনেমা হলে চলে আসেন তিনি। শো শেষ হওয়ার পর সিনেমা হল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

সুপারস্টারের কাছেই যেন দেবতা
নিজস্ব স্টাইলে কোটি মানুষের হৃদয় জয় করে নেওয়া রজনীকান্তকে অনুকরণ করেন শাহরুখ খান এবং সালমান খানসহ অনেক সুপারস্টারই। তাকে সম্মান জানাতে ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’-এ ‘লুঙ্গি ড্যান্স’ গানটি রাখা হয়েছিল।

সাধারণেই তিনি অসাধারণ
সবসময় লাখো ভক্তের ভালোবাসায় ভরে থাকা রজনীকান্ত সুপারস্টার হলেও খুব সাদাসিধে জীবন যাপন করেন। সেই সঙ্গে ভক্তদের যেন কোনও সমস্যা না হয় সে কথাটিও মাথায় রাখেন তিনি। একবার তার জন্মদিনের পার্টি থেকে ফেরার সময় দুর্ঘটনায় তিন ভক্তের মৃত্যুর পর থেকে শহরের বাইরে গিয়ে জন্মদিন পালন করেন রজনীকান্ত। আর এবার চেন্নাইয়ের এবারে বন্যার দুর্গতের কথা স্মরণ করে তিনি তার জন্মদিন বাতিল করেছেন।

ভারতের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকের অভিনেতা
রজনীকান্ত যেন যাই করেন, তাই বিখ্যাত হয়ে যায়। তার পারিশ্রমিকের পরিমাণও বেশি। ভারতে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পান এ মহাতারকা। আর এশিয়ার সুপারস্টারদের মধ্যে পারিশ্রমিকের দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে তিনি। ‘শিবাজি’ ছবির সাফল্যের পর তার পারিশ্রমিক পৌঁছায় ২৬ কোটি রুপিতে। পারিশ্রমিকের দিক দিয়ে এশিয়ান অভিনেতা জ্যাকি চ্যানের পরেই রয়েছে তার নাম।

যে কারণে টুইটার থেকে বিদায় নেওয়ার পরও ফেরত এলেন
একটা সময় মাক্রো-ব্লগিং সাইট টুইটার থেকে বিদায় নিয়েছিলেন রজনীকান্ত। তবে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি ড. এপিজে কালামের প্রতি ভালোবাসা তাকে টুইটারমুখী করেছে আবারও। রাষ্ট্রপতি এপিজে কালামের মৃত্যুর পর তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এবং তাকে স্মরণ করে একের পর এক টুইট করেছেন রজনীকান্ত।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

/এফইউ/এম/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।