সকাল ০৯:৫৪ ; শুক্রবার ;  ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮  

স্কুল ব্যাংকিংয়ে আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

এবার স্কুল ব্যাংকি সেবা কার্যক্রমের জন্য আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি মিলেছে বাংলাদেশ। ভারত ও ফিজিকে পেছনে ফেলে ‘চাইল্ড অ্যান্ড ইউথ ফাইন্যান্স ইন্টারন্যাশনালের’ (সিওয়াইএফআই) চলতি বছরের এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ‘কান্ট্রি অ্যওয়ার্ড’ বিভাগে পুরস্কার জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় লন্ডনে হাউজ অব লর্ডসে বাংলাদেশ বাংকের নির্বাহী পরিচালক মো. আবদুর রহিমের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কার তুলে দেন যুক্তরাজ্যের হাউস অব লর্ডসের সদস্য ব্যারনেস ভ্যালেরি জর্জিনা হওয়ার্থ ।

প্রতিবছর ৭টি বিভাগে এ পুরস্কার দিয়ে থাকে নেদারল্যান্ডসভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংস্থা সিওয়াইএফআই। উদ্ভাবনমূলক কর্মকাণ্ড ও প্রচেষ্টার মাধ্যমে শিশু ও তরুণদের শিক্ষা ও জীবনমানের উন্নয়নে ভূমিকার স্বীকৃতি স্বরূপ সংস্থাটি এ পুরস্কার দেয়।

এই পুরস্কার লাভকে বিশ্ব অঙ্গনে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাফল্যের ‘আরেকটি মাইলফলক’হিসেবে উল্লেখ করে গভর্নর আতিউর রহমান বলেন, শুধু স্বচ্ছল পরিবারের শিশু-কিশোরদের জন্য নয়, অনাথ ও পথশিশুদের জন্যও সুলভ ব্যাংকিং সেবা চালু করেছে বাংলাদেশ।

তিনি আরও বলেন, “চালুর ৫ বছরে স্কুল ব্যাংকিং সেবার আওতায় ব্যাংক হিসাবধারী শিশু-কিশোরের সংখ্যা প্রায় ৯ লাখ । আমানত প্রায় ৮০০ কোটি টাকা।”তিনি মনে করেন, বিনিয়োগে প্রবাহে শিশুদের এই আমানত দেশের অর্থনীতিতেও অবদান রাখছে।

আর্থিক শিক্ষা প্রকল্পের জন্য আগের বছর এ ক্যাটগরিতে পুরস্কার পেয়েছিল সিঙ্গাপুর । কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ‘স্কুল ব্যাংকিং’উদ্যোগের জন্য এবার বাংলাদেশ পেয়েছে পুরস্কারটি ।

স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সঞ্চয় প্রবণতা বাড়ানোর উদ্দেশ্যে ২০১০ সালে ‘স্কুল ব্যাংকিং’ কার্যক্রম চালু করে বাংলাদেশ ব্যাংক । ছবি আর নিজের বিদ্যালয়ের পরিচয়পত্র দেখিয়ে  ১০০ টাকা দিয়ে সঞ্চয়ী হিসাব খুলতে পারে যে কোনো শিক্ষার্থী।

খরচবিহীন এ ব্যাংক হিসাবের দেওয়া হয় মুনাফা। যখন তখন টাকা তোলা যায় এ হিসাব থেকে। এ থেকে পরিশোধ করা যায় স্কুল-কলেজের বেতন।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও আর্থিক খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর সংগঠন মোবাইল ব্যাংকিংয়ের প্রসারে গতবছর বাংলাদেশ ব্যাংককে ‘অ্যালায়েন্স ফর ফাইন্যান্সিয়াল ইনক্লুশন’ (এএফআই) পুরস্কার প্রদান করেছিল।

/এফএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।