দুপুর ০১:০৯ ; মঙ্গলবার ;  ১৯ নভেম্বর, ২০১৯  

চাল কেনার কথা বলে বাজারে আসে ডাকাতরা

ছাড়া পেয়ে নৈশপ্রহরী মাইকিং শুরু করে

প্রকাশিত:

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি।।

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার পুরিন্দা বাজারে চাল কেনার কথা বলেই ডাকাতি শুরু করে ডাকাত দল। বাজারে এসে দুই নৈশপ্রহরীর মাধ্যমে তাদের টার্গেট করা দোকান শনাক্ত করে। পরে তারা যখন তালা ভেঙে ট্রাকে বস্তা ওঠানো শুরু করে তখন এক নৈশপ্রহরী কোনওরকমে নিজেকে মুক্ত করে মসজিদে গিয়ে মুয়াজ্জিনকে দিয়ে মাইকিং করান। এরপর গ্রামবাসী বাজার ঘেরাও করে ডাকাতাদের পেটাতে শুরু করে।

বৃহস্পতিবার ভোরে পুরিন্দা বাজারে ডাকাতির ঘটনার পর সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান বাজারের দুই নৈশপ্রহরী নজরুল জামান ও মোতালেব মিয়া। তাদের বয়স ৫০ এর মতো।

নজরুল জামান জানান, বুধবার দিবাগত রাত ৩টার পর একটি ট্রাকে (ঢাকা মেট্রো ট ১৮-৪৩১১) চড়ে ১৫-২০ জনের সংঘবদ্ধ ডাকাত দল পুরিন্দা বাজারে আসে। বাজারটি ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশেই অবস্থিত। ট্রাকটি রাতে যখন মহাসড়কের পাশে আসে তখন সন্দেহ হওয়ায় তাদের জিজ্ঞাস করা হলে তারা জানায়, গফুর ভূইয়ার দোকান থেকে তারা চাল কিনতে এসেছেন। দোকানটি কোথায় জানতে চাইলে তাদের জানানো হয় রাতে তো দোকান বন্ধ। তখন তারা জানায়, গফুর ভূইয়ার সঙ্গে তাদের কথা হয়েছে, দোকান খোলা আছে।

নজরুল জামান বলেন, আমরা দুইজন দোকানের অবস্থান দেখিয়ে দেওয়ার পরেই তারা আমাদের হাত-পা দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলে। পরে ভাই ভাই স্টোর এর তালা ভেঙে অনেকগুলো বস্তা ট্রাকে তুলে নেয়।

নজরুল জামান আরও জানান, তিনি কোনওমতে বাঁধন খুলে স্থানীয় মসজিদে গিয়ে দ্রুত মাইকিং করায় ডাকাতদের ধরা সম্ভব হয়েছে।

এদিকে পুরো ঘটনাটি ডাকাতি বলে জানিয়েছেন ভাই ভাই স্টোরের মালিক গফুর ভূইয়া। তিনি বলেন, আমার সঙ্গে কারও কোনও শত্রুতা নেই যে এভাবে ডাকাতি করবে। হয়তো স্থানীয় কোনও সূত্রের মাধ্যমে খবর পেয়ে আমার দোকানে হানা দিয়েছে। ফজরের নামাজের পর জানতে পেরে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি সাটার ও তালা ভাঙা। ট্রাকের মধ্যে শতাধিক চালের বস্তা।

/জেবি/এএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।