রাত ১২:১৮ ; মঙ্গলবার ;  ১৭ জুলাই, ২০১৮  

বাংলাদেশ ব্যাংক পুরো আর্থিক খাতের অভিভাবক: বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বাংলাদেশ ব্যাংককে আরও নমনীয় ও পুঁজিবাজারবান্ধব নীতি গ্রহণ করতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক শুধু ব্যাংকিং খাত নয়, পুরো আর্থিক খাতের অভিভাবক। মুদ্রাবাজারের মতো পুঁজিবাজারও আর্থিক খাতের অংশ। তাই মুদ্রাবাজার ও পুঁজিবাজার নিবিড়ভাবে সম্পৃক্ত। পুঁজিবাজারে ব্যাংকের বাড়তি বিনিয়োগ সংক্রান্ত জটিলতা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সমন্বয়ের মাধ্যমে সমাধান করা সম্ভব।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, পুঁজিবাজার গতিশীল হলে শিল্প-বাণিজ্য আরও গতিশীল হবে। বর্তমানে আবাসন খাতে যে মন্দা চলছে, এর সাথে পুঁজিবাজারের সম্পর্ক রয়েছে। পুঁজিবাজার চাঙ্গা হলে আবাসন খাতেও গতি ফিরে আসবে। বাজারে বহুজাতিক কোম্পানি অনেক মুনাফা করলেও দেশের মানুষ তার কোন লভ্যাংশ পাচ্ছে না। দেশি ও বহুজাতিক ভালো কোম্পানিকে বাজারে নিয়ে আসতে সরকারের পাশাপাশি স্টক এক্সচেঞ্জকে ভূমিকা রাখতে হবে। পুঁজিবাজারে প্রাণ ফেরাতে নতুন বিনিয়োগকারি আকৃষ্ট করতে হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বৃহস্পতিবার ঢাকায় ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে অনলাইল বিজনেস নিউজ পোর্টাল অর্থসূচক এর উদ্যোগে আয়েজিত তিন দিনব্যাপী ‘বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো-২০১৫’ এর উদ্বেধন করে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ সব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের পুঁজিবাজারের ইতিহাসে এই প্রথম প্রায় সবগুলো স্টেকহোল্ডার উৎসক মুখর পরিবেশে একসঙ্গে সমবেত হয়েছে। পুঁজিবাজারের জন্য এটি একটি বড় ও বিরল ঘটনা। এ ধরনের যোগাযোগের মধ্য দিয়ে আর্থিক বাজারের বিভিন্ন নিয়ন্ত্রকদের মধ্যে নৈকট্য আরও বাড়বে।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন অর্থনৈতিক, সামাজিকসহ সকল ক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তিতে আগামী ২০২১ সালে রফতানি ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত করার লক্ষ্য নিয়ে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। তৈরী পোশাকখাতে রফানির লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপোতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৬৫টি স্টল রয়েছে। এ সব স্টল তাদের নিজ নিজ পণ্য ও সেবা প্রদর্শন করবে। দর্শনার্থীরা তাদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর জানতে পারবেন।

অর্থসূচকের সম্পাদক জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেডের  চেয়ারম্যান বিচারপতি ছিদ্দিকুর রহমান, চট্রগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. এম এ মজিদ, এবং ডিএসই ব্রোকার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট আহসানুল ইসলাম টিটু।

/এসআই/এফএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।