দুপুর ০২:১১ ; মঙ্গলবার ;  ১৯ নভেম্বর, ২০১৯  

নারায়ণগঞ্জে উচ্ছেদ করে রাজউকের ৪৮ কাঠা জমি উদ্ধার

প্রকাশিত:

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি।।

নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়া বালুর মাঠ এলাকায় নিজেদের ৪৮ কাঠা জমি উদ্ধার করে কাঁটাতারের বেড়া দিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। দীর্ঘদিন ধরে ওই জমিটি  মাইক্রোবাস ও ট্যাক্সি স্ট্যান্ডের জন্য ইজারা দিয়ে আসছিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন ও বিলুপ্ত নারায়ণগঞ্জ পৌরসভা। বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ট্যাক্সি স্ট্যান্ডের শ্রমিক ইউনিয়ন কার্যালয়সহ অন্তত ৫০টি অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দেওয়া হয়।

উচ্ছেদ অভিযানের নেতৃত্বে ছিলেন রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জামাল আকতার ও ইফতেকার আহম্মেদ চৌধুরী। ওই সময় রাজউকের যুগ্ম-সচিব দুলাল কৃষ্ণ সাহা, রাজউকের সদস্য (উন্নয়ন নিয়ন্ত্রণ) মোহাম্মদ আব্দুল হাই, রাজউকের নারায়ণগঞ্জ জোনের কর্মকর্তা আশিষ কুমার সাহা, নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়াসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।

আশিষ কুমার সাহা জানান, অবৈধ দখলদারদের তিনি গত রবিবার নোটিশ দিয়েছেন। কিন্তু এর মধ্যে তারা সরে না যাওয়ায় বৃহস্পতিবার এই উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়।

রাজউকের সদস্য আবদুল হাই জানান, জায়গাটি রাজউকের। এ জমি নিয়ে সিটি করপোরেশনের সঙ্গে মামলা কিংবা কোনও ধরনের ঝামেলা নেই। এতদিন এই জমিটি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন অবৈধভাবে ইজারা দিয়ে আসছিল।

তবে উচ্ছেদের পর মাইক্রোবাস ও ট্যাক্সি চালকরা বিক্ষোভ করে নগরভবনের সামনে গিয়ে অবস্থান নেয়। পরে নারায়ণগঞ্জ জেলা মাইক্রোবাস ও ট্যাক্সি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি নুরুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি দল মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর সঙ্গে দেখা করেন। পরে মেয়রের আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে তারা নগরভবনের সামনে দুই পাশের সড়কে গাড়ি পার্ক করে রাখেন।

সিটি করপোরেশনের সঙ্গে কোনও আলোচনা না করে হঠাৎ এই উচ্ছেদ নিয়ে মেয়র আইভী বলেন, এই জায়গাটি নিয়ে রাজউকের সঙ্গে পৌরসভা থাকাকালীন মামলা ছিল। ওই মামলা এখনও চলছে। এ অবস্থায় রাজউক অন্যায়ভাবে তাদের জমি উদ্ধার করেছে। একজন এমপি রাজউকের ঠিকাদারীর ভূমিকা নিয়ে এসব কাজ করছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা মাইক্রোবাস ও ট্যাক্সি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি নুরুল ইসলামের বলেন, ইউনিয়নের ৪৬৫ সদস্যের ৬ শতাধিক গাড়ি রয়েছে। আমরা এই জমিটি ৮ লাখ টাকা দিয়ে সিটি করপোরেশেনর কাছ থেকে ইজারা নিয়েছি। আমাদের বিনা নোটিশে উচ্ছেদ করা হয়েছে।

/জেবি/এএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।