রাত ০৫:৪৮ ; শুক্রবার ;  ১৯ জানুয়ারি, ২০১৮  

ভাগ্য জয় করে নিতে হবে নারীদের: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

‘নারীদের আপন ভাগ্য জয় করে নিতে হবে। তবেই আত্মবিশ্বাস আত্মমর্যাদার পথ খুলে দেবে।’ বুধবার (৯ ডিসেম্বর) রোকেয়া দিবস উপলক্ষে ‘বেগম রোকেয়া পদক’ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই কথা বলেন।

তাঁতশিল্প ও তাঁতীদের আর্থসামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখায় ফ্যাশন ডিজাইনার বিবি রাসেল এবং নারীর উন্নয়ন ও সমাজসেবায় অবদানের জন্য কবি তাইবুন নাহার রশীদ (মরণোত্তর) এবছর ‘বেগম রোকেয়া পদক’ পেয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে এই পদক তুলে দেন। তাইবুন নাহারের পক্ষে তার ছেলে আলী আজগর খুরশীদ পদক গ্রহণ ক‌রেন। বিবি রাসেল নিজেই পদক গ্রহণ করেন।  ১৮ ক্যারেট মানের ২৫ গ্রাম ওজনের একটি স্বর্ণপদক ছাড়াও এক লাখ টাকা এবং একটি সম্মাননাপত্র দেওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বেগম রোকেয়া বলেছিলেন ‘আমার মেট্রিক পরীক্ষা কেয়ামতের পরদিন দেওয়া হবে’। তবে তার সেই স্বপ্ন আমরা পূরণ করতে পেরেছি। দেশে এখন লেখাপড়া, খেলাধুলাসহ সব কাজে অংশ নিচ্ছে তারা। কর্মক্ষেত্রে মেয়েদের দূরে রাখার দিন আর নেই। ইসলাম নারীদের সেই সুযোগ করে দিয়েছে। ইসলাম ধর্ম গ্রহণকারী প্রথম নারী বিবি খাদিজা ছিলেন একজন ব্যবসায়ী।’

তিনি আরও বলেন, ‘দেশে এখন প্রধানমন্ত্রী, বিরোধী দলীয় নেত্রী, সংসদ উপনেতা ও স্পিকার পদে নারীরা আছেন। পৃথিবীর আর কোথাও এমন দৃষ্টান্ত নেই। ভবিষ্যতে আমরা এমন আরও অনেক দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে পারবো, সেই বিশ্বাস আমার আছে।’

প্রধানমন্ত্রী নারী উন্নয়নে তাঁর সরকারের অবদানের কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘ক্ষুদ্র ঋণ দিয়ে আসলে কোনও উন্নয়ন হয় না। সুদ দিতে দিতেই ঋণের টাকা শেষ হয়ে যায়। তাই মাইক্রো ক্রেডিটের পরিবর্তে আমরা মাইক্রো সেভিংস চালু করেছি। একটি বাড়ি একটি খামার, কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রকল্প চালু করেছি। এগুলো আমার নিজস্ব উদ্যোগ। তবে বাবা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কাছ থেকে ধারণা পেয়েছিলাম।’

/পিএইচসি/এফএস/

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।