দুপুর ১২:৩৮ ; বুধবার ;  ২৫ এপ্রিল, ২০১৮  

রাজশাহীতে কাউন্সিলর প্রার্থী ভ্যানচালক কুদু

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

রাজশাহী প্রতিনিধি।।

পেশায় ভ্যানচালক। দিনে আয় দুই থেকে আড়াই শত টাকা। দুই শতাংশ জমির ওপর দুটি টিনের ঘর। পরিবারে সদস্য সংখ্যা চার জন।

আবদুল কুদ্দুস ওরফে কুদু নামের ভ্যানচালকই রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরসভা নির্বাচনে এক নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হয়েছেন। তিনি আশা করছেন জনগণ তাকেই নির্বাচিত করবেন।

আবদুল কুদ্দুসের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম। বড় ছেলে খায়রুল ইসলাম পৌর বাজারে ফুটপাতে পান বিক্রি করে। ছোট ছেলে স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ছে। কুদু কোনওদিন স্কুলে যাননি। এমনকি স্বাক্ষরও করতে পারে না। মনোনয়ন পত্রে ও হলফনামায় তার টিপসই দিয়েছেন।

কুদু বেশ কিছুদিন আগে থেকেই ওয়ার্ডের মোড়ে মোড়ে ব্যানার টাঙিয়ে জানিয়ে দিয়েছিলেন নির্বাচন করবেন। অবশেষে প্রার্থীও হলেন তিনি। চালাচ্ছেন প্রচারণাও। এখনও প্রতীক বরাদ্দ হয়নি। কিন্তু পছন্দের প্রতীক চেয়েছেন ডালিম। সবসময় পকেটে একটি ডালিম রাখছেন। সকালে ভ্যান নিয়ে বের হয়ে জনগণের কাছে ভোট চাইছেন। সারাদিন ভ্যান চালিয়ে যা পাচ্ছেন সন্ধ্যার পর মোড়ে মোড়ে ওই টাকা দিয়ে চা, পান খাওয়াচ্ছেন।আবদুল কুদ্দুস বলেন, এগুলো আমার পরিশ্রমের টাকা। যারা এ টাকায় চা, পান খাচ্ছেন তারা সবাই আমাকে ভোট দেবেন। তিনি আরও বলেন, ‘আমার অনেক দিনের ইচ্ছা ছিল ওয়ার্ড কাউন্সিলের নির্বাচন করার। তাই নির্বাচন করছি। জনগণ আমাকে নির্বাচিত করবেন। তবে আমি নির্বাচিত হলেও ভ্যান চালিয়ে সংসার চালাব। আর পৌরসভা থেকে যে বরাদ্দ পাব, সেগুলো আমার মতো জনগণের মাঝে সঠিকভাবে বিতরণ করব।

এ ওয়ার্ডে কুদু ছাড়াও আরও তিন জন প্রার্থী হয়েছেন। তারা হলেন, রেজাউল করিম রেজা, রবিউল ইসলাম ও বর্তমান কাউন্সিলর আবদুল মালেক। এ ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা এক হাজার ১৮২।

/এমআর/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।