রাত ১২:২৩ ; মঙ্গলবার ;  ১৭ জুলাই, ২০১৮  

ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ ভোজ্যতেল সরবরাহ নিশ্চিতে শিগগিরই অভিযান

প্রকাশিত:

বাংলা ট্র্রিবিউন রিপোর্ট।।

ভোক্তা পর্যায়ে শতভাগ ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ ভোজ্য তেল সরবরাহ নিশ্চিত করতে শিগগিরই বিএসটিআই এর নেতৃত্বে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছেন শিল্পসচিব মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

বিসিকের ‘সর্বজনীন আয়োডিন যুক্ত লবণ তৈরির কার্যক্রমের মাধ্যমে আয়োডিন ঘাটতি পূরণ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় আয়োডিন যুক্ত লবণ এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের ‘ফর্টিফিকেশন অব এডিবল অয়েল ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ ভোজ্যতেল ব্যবহারে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, সংস্থা, আন্তর্জাতিক সহযোগী প্রতিষ্ঠান এবং মুদ্রণ ও ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের নিয়ে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় শিল্প সচিব এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ভোজ্য তেলে ভিটামিন-এ সমৃদ্ধকরণ আইন, ২০১৩ এর আলোকে এ অভিযান পরিচালনা করা হবে। আইনের কঠোর প্রয়োগের আগে ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় ভোজ্য তেল শোধনাগার মালিক, আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীদের নিয়ে অবহিতকরণ সভার করা হবে বলে তিনি জানান।

সভায় তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শাহাজাদী আঞ্জুমান আরা, বিসিকের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম, মাইক্রোনিউট্রেন্ট ইনিসিয়েটিভ-এর বাংলাদেশ কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা. এস এম মোস্তাফিজুর রহমান, ইউনিসেফের নিউট্রিশন অফিসার ডা. আইরিন আক্তার চৌধুরী, গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ইমপ্রুভ নিউট্রেশনের কর্মকর্তা দেবাশীষ চন্দসহ উর্ধ্বতন  কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জানানো হয়, আয়োডিনযুক্ত লবণ ব্যবহার বাড়াতে সরকার গৃহীত পদক্ষেপের ফলে ইতিমধ্যে দেশে আয়োডিন ঘাটতিজনিত রোগ-বালাই কমে এসেছে। বর্তমানে দেশের শতকরা ৮০ ভাগেরও বেশি মানুষ কমবেশি আয়োডিনযুক্ত লবণ ব্যবহার করছে। ভোক্তা পর্যায়ে শতভাগ আয়োডিনযুক্ত লবণ ব্যবহার নিশ্চিত করতে ইতিমধ্যে ১১৭টি লবণ কারখানায় লবণ পরীক্ষাগার স্থাপন, ২৬৭টি লবণ কারখানায় এসআইপি মেশিন সরবরাহ এবং ২০০টি কারখানায় এসআইপি মেশিন আধুনিকায়ণ করা হয়েছে।

আয়োডিনযুক্ত লবণ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণে বাধ্য করতে সরকার লবণ আইনের কঠোর প্রয়োগ করবে বলে সভায় জানানো হয়।

সভায় আরও জানানো হয়, ভোজ্য তেলে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণ কর্মসূচির আওতায় ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি ভোজ্য তেল শোধনাগারের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে সরকার। এ সমঝোতা অনুসারে শোধনাগারগুলো উৎপাদন ও বাজারজাতকরণে বাধ্যতামূলকভাবে ভোজ্য তেলে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ করবে। যে সব শোধনাগার এখনও এ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেনি, তাদেরকে বিদ্যমান আইন অনুযায়ী বাধ্য করা হবে।

সভায় শিল্পসচিব বলেন, সরকার জনস্বার্থে এ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বুদ্ধিদীপ্ত জাতি গঠনের লক্ষ্যে গৃহিত এ কর্মসূচি বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট সকলকে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে।

তিনি জনকল্যাণমুখী এ কর্মসূচি বাস্তবায়নে ব্যবসায়ী, শিল্প উদ্যোক্তা, গণমাধ্যমকর্মীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সহায়তা কামনা করেন।

/এসআই/এফএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।