রাত ০৫:৩৩ ; রবিবার ;  ১৮ নভেম্বর, ২০১৮  

বরগুনায় দেবরের হাতে ভাবী খুন

প্রকাশিত:

বরগুনা প্রতিনিধি।।

বরগুনার তালতলীতে দেবরের হাতে তানিয়া আক্তার নামের এক গৃহবধূ খুন হয়েছেন। তিনি দুই সন্তানের মা। সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সোনাকাটা ইউনিয়নের ইদুপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

তালতলী থানার ভারপ্রপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাবুল আক্তার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এলাকাবাসী জানায়, উদুপাড়ার মন্নান খাঁয়ের মৃত্যুর পরে তার দুই ছেলে দুলাল খাঁ ও হাবিব খাঁ মাকে নিয়ে একই বাড়িতে বসবাস করে আসছেন। পটুয়াখালী সরকারি কলেজে দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র হাবিব দুদিন আগে বড় ভাইয়ের কাছে মাকে নিয়ে আলাদাভাবে থাকার দাবি জানায়। এসময় বড় ভাই দুলাল খাঁ জানান, দুটি পরিবারকে টাকা দেওয়া তার পক্ষে সম্ভব না। তিনি ছোট ভাইকে বলেন আলাদাভাবে বসবাস করতে হলে তাদেরই আয় করে চলতে হবে।

হাবিব তার বড় ভাইয়ের এই কথায় ক্ষুব্ধ হয়। পরে বড় ভাই মাছ ধরার জন্য বঙ্গোপসাগরে চলে গেলে সোমবার সকালে তানিয়ার ওপর হামলা করেন হাবিব। ঘরে বসে তানিয়া যখন হেউলিপাতার হোগলা বুনছিলেন তখন হাবিব ধারালো দা দিয়ে তানিয়ার ঘারে ও বুকে কোপ দেন।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাবুল আক্তার জানান, মুমূর্ষু অবস্থায় স্থানীয়রা তানিয়াকে আমতলী উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর থেকে তানিয়ার শাশুড়ি কুলসুম বেগম ও দেবর হাবিব পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় তালতলী থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

/এআর/এফএস/

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।