রাত ১১:৪৯ ; সোমবার ;  ১৮ নভেম্বর, ২০১৯  

জলঢাকায় দুই মেয়েকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

প্রকাশিত:

নীলফামারী প্রতিনিধি।।

নীলফামারীর জলঢাকায় দুই শিশুকন্যাকে হত্যার পর গলায় ফাঁস দিয়ে মা আত্মহত্যা করেছেন বলে পুলিশের ধারণা। ওই নারীর নাম ফেন্সি বেগম (৩২)। রবিবার সকালে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার কাঁঠালি ইউনিয়নের দেশিবাড়ি আশ্রয়ন প্রকল্পে ঘটনাটি ঘটে। নিহত দুই মেয়ে হলো-আকলিমা বেগম (৮) ও খাদিজা বেগম (৪)।

খবর পেয়ে পুলিশ বেলা সাড়ে ১১টায় ঘটনাস্থল থেকে মা ও দুই মেয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। ফেন্সি বেগম কাঁঠালি ইউনিয়নের মো. আশরাফ আলীর স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানায়, আশরাফ সকালে কাজে বেরিয়ে যান। এরপর সকাল সাড়ে নয়টার দিকে প্রতিবেশীরা দেখতে পায় তার দুই মেয়ের মৃতদেহ বিছানায় এবং পাশে তার স্ত্রীর লাশ ঝুলছে। এরপর এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়।

জলঢাকা থানার ওসি দিলওয়ার হাসান ইনাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে স্বামী-স্ত্রীর কলহের জের ধরে দুই শিশু কন্যাকে হত্যার পর ফেন্সি আত্মহত্যা করেছেন। লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্তের পর ঘটনার মূল রহস্য জানা যাবে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আশরাফ আলীকে আটক করা হয়েছে।

 

/জেবি/এফএ/

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।