বিকাল ০৪:২১ ; শনিবার ;  ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯  

ঝকঝকে-তকতকে ঘরের রেসিপি!

প্রকাশিত:

লাইফস্টাইল ডেস্ক।।

ঘরের মেঝে আঠালো হয়ে যাওয়ার সমস্যায় পড়েনি এমন কেউ নেই বললেই চলে। শুধুকি আঠালো? মেঝে ঘেমে ওঠা, দাগ পড়ে যাওয়ার নানা সমস্যা আছেই। একেবারে ঝকঝকে মেঝের রেসিপি দিচ্ছে বাংলা ট্রিবিউন।

মেঝে পরিস্কারের ক্লিনিং লিকুইড-

সাবান দিয়ে ঘসাঘসি করে মেঝে পিচ্ছিল করার কোনও দরকার নেই। আপনি নিজেই তৈরি করে নিন ক্লিনিং লিকুইড। চার টেবিল চামচ সোডার সঙ্গে  আধ বালতি গরম পানি মিশিয়ে নিন। এটি দিয়ে চটচটে হয়ে থাকা মেঝে, রান্না ঘরের দেওয়াল মুছে নিন। চটচটে ভাব একদম কেটে যাবে। এই লিকুইড দিয়ে, ফ্রিজ অভেনও পরিস্কার করা যাবে।

দূর করুন ময়লার গন্ধ-

ঘরে ময়লার ঝুড়ি থাকলে গন্ধ হতেই পারে। তাই ময়লার ঝুড়ি বারান্দায় রাখাই উত্তম। কিন্তু কিচেনে থাকা ময়লার ঝুড়িতে গন্ধ হয় এটাই স্বাভাবিক। সেটি থেকে রক্ষা পেতে হলে ঝুড়িতে লেবুর খোসা কুচি করে রেখে দিন। আর ঘর মোছার সময়ও পানিতে লেবু দিয়ে মুছলে কটু গন্ধ দূর হয়ে যাবে।

দেওয়ালের দাগ আর চাই না-

আপনার শিশু হিজিবিজি এঁকে দেওয়াল ভরে ফেলেছে? আর আঁকার জায়গা নেই! এই দেওয়ালটাই পরিস্কার করে দিন। বেকিং সোডা গোলানো পানিতে স্পঞ্জ চুবিয়ে আস্তে আস্তে মুছে নিন দেওয়াল। রং ঠিক রেখে ঠিকঠাক দেওয়াল পরিস্কার হয়ে যাবে। আবার নির্ভাবনায় আঁকতে দিন আপনার সন্তানকে।

চকচকে মেঝে চাই-

মেঝে পরিস্কার তো হলোই। কিন্তু চকচকে মেঝে যাদের চাই তাদের আরেকটু কষ্ট করতে হবে। সোডা দিয়ে মুছে নেওয়ার পর ভিনেগার মেশানো ঠাণ্ডা পানি দিয়ে আরেকবার মেঝে, জানালা মুছতে হবে। ভিনেগার দিয়ে মেঝে পরিস্কার করলে পিঁপড়া ওঠার ভয়টাও চলে যাবে এবং কটু গন্ধও থাকে না।

বাথরুম পরিস্কার থাকুক দীর্ঘক্ষণ-

বাথরুম দীর্ঘসময় পরিস্কার রাখতে চাইলে হাত ধোয়ার সাবান দিয়ে বাথরুমের সিঙ্ক পরিস্কার করুন। আর মেঝে পরিস্কার করুন ভিনেগারও সোডার মিশ্রণ দিয়ে। এতে দাগও উঠবে দ্রুত।  বাথরুমে সুগন্ধী রাখতে না চাইলে লেবুর খোসা রাখুন। দুর্গন্ধ থাকবে না।

/এফএএন/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।