রাত ১২:১৬ ; মঙ্গলবার ;  ১৭ জুলাই, ২০১৮  

কাঁচা পাট রফতানি বন্ধ

প্রকাশিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ থেকে সব ধরনের কাঁচা পাট রফতানি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে বৃহস্পতিবার সকালেই এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়।

পাট অধ্যাদেশ ১৯৬২-এর ৪ ও ১৩ ধারা মোতাবেক যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে জারি করা প্রজ্ঞাপনে স্বাক্ষর করেছেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারি সচিব বেবী পারভীন।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন-২০১০ এর সঠিক প্রয়োগ ও বাস্তবায়নের নিমিত্তে পাট অধ্যাদেশ ১৯৬২-এর ৪ ও ১৩ ধারা মোতাবেক যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সকল প্রকার কাঁচা পাট রফতানি বন্ধ রাখা হলো।

এর আগে গত ২ নভেম্বর পাট অধ্যাদেশের ওই দুই ধারা মোতাবেক যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নিয়ে ৩ নভেম্বর থেকে পরবর্তী এক মাস কাঁচা পাট রফতানি বন্ধ রাখতে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, ধান, চাল, গম, ভুট্টা, সার ও চিনি- এ ছয়টি পণ্যে পাটজাত মোড়কের ব্যবহার নিশ্চিত করতে এবং এ সম্পর্কিত আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে রাজধানীতে সাঁড়াশি অভিযান শুরু হয় এ সপ্তাহেই।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন, দেশের সোনালী আঁশ নামে পরিচিত পাটের ব্যবহার নিশ্চিতকরণ, পাট চাষীদেরকে পাট চাষে উদ্বুদ্ধকরণ, দেশের মৃতপ্রায় পাটকলগুলোকে সচল রাখা এবং সর্বোপরি পাটকলগুলোর শ্রমিকদের কল্যাণের কথা ভেবেই সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তিনি আরও জানিয়েছেন, ধান, চাল, গম, ভুট্টা, সার ও চিনির মোড়কে পাটের বস্তা ও ব্যাগ ব্যাবহারে বাধ্য করতে চলমান অভিযান চলবে।

/এসআই/এফএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।