সকাল ০৯:২৩ ; শুক্রবার ;  ১৭ আগস্ট, ২০১৮  

জাবির ক্লাস-পরীক্ষাহীন ১৭ দিন!

প্রকাশিত:

জাবি প্রতিনিধি।।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের ক্লাস-পরীক্ষা দীর্ঘ ১৭ দিন ধরে বন্ধ রয়েছে। নিরাপত্তার  ঝুঁকি দেখিয়ে বিভাগটির শিক্ষকরা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই সিদ্ধান্তের বিঘ্ন সাধারণ শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম ব্যহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন  সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে, বুধবার দ্রুত শিক্ষা কার্যক্রম চালুর দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে দুপুর পৌনে ১২ টা থেকে ১ টা পর্যন্ত তারা এই কর্মসূচি পালন করে। পরে দুপুর ১ টার দিকে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবুল হোসেনের আশ্বাসে কর্মসূচি প্রত্যাহার করেন শিক্ষার্থীরা।

বিভাগীয় সূত্র জানিয়েছে, ২০১২ সালে ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের ৩৭তম আবর্তনের স্নাতকোত্তর চূড়ান্ত পরীক্ষায় অনিয়মসহ একাধিক কারণে অধ্যাপক মো. মনজুরুল হাসানকে ওই বিভাগ থেকে বয়কট করা হয়। পরে ওই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের সঙ্গে নিয়ে বিচরণের অভিযোগ ওঠে। এই ভিত্তিতে বিভাগীয় শিক্ষকদের নিরাপত্তা চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে একটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়। লিখিত অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে থানায় সাধারণ ডায়েরি করার জন্য ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত সময়সীমা বেঁধে দেন শিক্ষকরা। তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পদক্ষেপ না নেওয়ায়, ওইদিন রাতেই বিভাগের জরুরি সভায় ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধের সিদ্ধান্ত নেন শিক্ষকরা।

এ বিষয়ে রেজিস্ট্রার আবু বকর সিদ্দিক বলেন, সমস্যা সমাধানে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যথাসাধ্য চেষ্টা করছে।

ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক মো. সাজেদ আশরাফ করিম বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রাথমিক তদন্ত কমিটি গঠন করে শিক্ষকদের ক্লাস-পরীক্ষা চালুর অনুরোধ জানিয়েছে। তবে শিক্ষকরা এতে পুরোপুরি আশ্বস্থ হতে পারেননি। তাই তারা ক্লাস-পরীক্ষা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছেন।

এদিকে, সোমবার ক্লাস-পরীক্ষা চালুর অনুরোধ জানিয়ে বিভাগীয় শিক্ষকদের চিঠি পাঠায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। একই দিন শিক্ষাকার্যক্রম চালুর দাবিতে বিক্ষোভ করেন সাধারণ শিক্ষার্থীরাও।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে গঠিত প্রাথমিক তদন্ত কমিটির সদস্যরা হলেন, জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন আবদুল জব্বার হাওলাদার (প্রধান) এবং অন্য দুজন সদস্য হলেন গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ ও ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক মো. তাইবুল হাসান।

/এনএস/এমএনএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।