রাত ০৪:৪৯ ; শুক্রবার ;  ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৯  

ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন বাস্তবায়ন একা সম্ভব না: এনবিআর চেয়ারম্যান

প্রকাশিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ॥

শুধু এনবিআরের (জাতীয় রাজস্ব বোর্ড) একার পক্ষে ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন বাস্তবায়ন সম্ভব না। এর সঙ্গে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয়সহ সরকারের অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিভাগ জড়িত। এনবিআরের সঙ্গে এই উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে সব বিভাগের সঙ্গে সুসম্পর্ক আছে বলে জানিয়েছেন এনবিআরের চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান। তিনি বলেন, বিশেষ করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে অন্তরঙ্গ সম্পর্ক। আমরা আসন্ন নাইরোবিতে ডব্লিউটিএ’র সম্মেলনে বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গে থাকছি। সেখানে এই ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন সম্বন্ধে আরও বিশদভাবে আলোচনা হবে বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর মতিঝিলের ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (ডিসিসিআই) কার্যালয়ে ‘ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন: চ্যালেঞ্জ অ্যান্ড অপরচুনিটিস ফর সাস্টেইনেবল গ্রোথ’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ডিসিসিআইয়ের সভাপতি হোসেন খালেদের সভাপতিত্বে এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনীতি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক অমিতাভ চক্রবর্তী, বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) অতিরিক্ত গবেষণা পরিচালক গোলাম মোয়াজ্জেম, বিকেএমইএ’র সহসভাপতি এএইচ আসলাম সানি, সাবেক সহসভাপতি মোহাম্মদ হাতেম প্রমুখ।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ট্রেড ফ্যাসিলিটেশনের ক্ষেত্রে আমরা অগ্রাধিকার দিয়েছি। এক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রী বিশেষ নজর রাখেন। এছাড়া এ সংক্রান্ত ডব্লিউটিএ’তে যেসব সিদ্ধান্ত হয়েছে, তা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রেও আমরা অনেক এগিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, এখন নতুন এনবিআর, যেখানে প্রধানমন্ত্রীর রূপকল্প বাস্তবায়নের জন্য ৫-পি’র আওতায় কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের সব ধরনের বৈধ ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) অতিরিক্ত গবেষণা পরিচালক গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন বাস্তবায়নে এখনও চার ধরনের সমস্যা বিদ্যমান। এর মধ্যে প্রথমটি নীতিগত সমস্যা, যেটার সিদ্ধান্তহীনতায় আমরা সবসময় ভুগি। দ্বিতীয়ত, অপারেশনাল সমস্যা, যা আমরা বাস্তবায়ন করতে পারি না। তৃতীয়টি হচ্ছে, এটি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে আমরা সমন্বয় করতে পারি না। আর চতুর্থ হচ্ছে, অনেক ব্যবসায়ীর ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন সম্পর্কে জ্ঞানের ঘাটতি।

মতবিনিময় সভায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক অমিতাভ চক্রবর্তী বলেন, বিভিন্ন আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন বাস্তবায়নে পদক্ষেপ নেওয়া সম্ভব। এটি বাস্তবায়নে এবিসি নামের ক্যাটাগরি আগে চিহ্নিত করতে হবে।

/এসআই /এএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।