ভোর ০৬:৫০ ; মঙ্গলবার ;  ১৯ নভেম্বর, ২০১৯  

শেষ দিনে আজ ভারত যাচ্ছে ১৭ জন

প্রকাশিত:

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি।।

সদ্য বিলুপ্ত ছিটমহল থেকে আজ রবিবার কুড়িগ্রামের দাশিয়ারছড়া থেকে ভারত যাচ্ছে ১৭ জন। ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাছির উদ্দিন মাহমুদ বাংলা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রবিবার দুপুর নাগাদ এই ১৭ জন কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলার বাভান্ডার সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশ করবেন বলে জানা গেছে।

দাশিয়ারছড়ার দেবীর পাঠ গ্রামের মৃনাল চন্দ্র তার স্ত্রী রেখা বালা ও একমাত্র মেয়ে মিথিলাকে নিয়ে আজ রবিবার ভারতে যাবেন। সঙ্গে থাকছেন মৃনালের বাবা ধীরেন্দ্র বর্মন এবং মা অনিলা। মিথিলার প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার কারণে তারা এর আগের দুই দফায় ভারত যেতে পারেননি। মৃথিলা ফুলবাড়ি উপজেলার গঙ্গাহাট প্রাইমারি স্কুলে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

ধীরেন্দ্র বর্মন জানান, সাত পুরুষের ভিটা-মাটি ছেড়ে তার মন চায় না ভারত যেতে। কিন্তু তার দুই ছেলে মৃনাল ও অনুকুল ভারত যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় তিনিও যেতে বাধ্য হচ্ছেন। একই মত তার স্ত্রী অনিলার। তিনি জানান, এতো বছরের মায়ার বাঁধনে গড়ে তোলা তার সংসার আর বাড়ির চারপাশে যত্নে গড়ে তোলা বাগান ছেড়ে যেতে তার বুক ফেটে যাচ্ছে। কিন্তু তিনি অপারগ। সন্তানদের সঙ্গে তাকেও যেতে হচ্ছে ভারতে।

মৃনালের পরিবারের পাঁচজন ছাড়াও দাশিয়ারছড়া থেকে আরও ১২ জন আজ স্বজনদের ছেড়ে ভারতে পাড়ি দিচ্ছেন। এর আগে দুই দফায় দাশিয়ারছড়া থেকে ২০৬ জন এবং ভুরুঙ্গামারীর গাড়োলঝাড় থেকে ২৪ জনসহ মোট ২৩০ জন ভারতে চলে গেছেন।

ফুলবাড়ীর ইউএনও নাছির উদ্দিন মাহমুদ জানান, কুড়িগ্রামের অভ্যন্তরের বিলুপ্ত ছিটমহলের ৩০৫ জন বাসিন্দা প্রথম অবস্থায় ভারতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও শেষ পর্যন্ত দুই দফায় ভারতে গেছেন ২৩০ জন। রবিবার ১৭ জন যাওয়ার কথা রয়েছে। বাকি ৭৫ জনের মধ্যে একজন মারা গেছেন। অপরদিকে ট্রাভেল পাস পাওয়া ৭০ জন বাংলাদেশ ছেড়ে না যাওয়ার জন্য জেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছেন।

/এসএম/এএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।