ভোর ০৭:১৩ ; শনিবার ;  ১৯ অক্টোবর, ২০১৯  

পৌর প্রার্থীদের প্রচারণায় সতর্ক করল ইসি

প্রকাশিত:

ইব্রাহিম রনি, চাঁদপুর।।

প্রচার-প্রচারণায় বিধিভঙ্গ না করতে প্রার্থীদের সতর্ক করেছে ইসি। পৌর নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর রির্টানিং অফিসার কর্তৃক গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। প্রার্থীদের প্রচারণার বিলবোর্ড, ফেস্টুন, ব্যানার সরানোর জন্য বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) রাত ১২টা পর্যন্ত সময় নির্ধারণ করে পৌর এলাকায় মাইকিং করে নির্বাচন কমিশন।

ইসির সহকারী সচিব রাজীব আহসান স্বাক্ষরিত একটি চিঠি গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হয়। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, বৃহস্পতিবার রাত ১২টার আগে সব ধরনের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে প্রার্থীদের। এরপরও রিটার্নিং কর্মকর্তা যদি কারও প্রচারসামগ্রী পান, তাহলে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে সেসব প্রার্থীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া যাবে।  এ ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ শাস্তি হিসেবে প্রার্থিতাও বাতিল হতে পারে।

শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত চাঁদপুরের পাঁচ পৌর এলাকায় রঙিন ফেস্টুন, ব্যানার, বিলবোর্ড ও পোস্টার উচ্ছেদ করে নির্বাচন অফিস।

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আতাউর রহমান জানান, কমিশনের নির্দেশ অমান্য করে কেউ রঙিন পোস্টার, ব্যানার কিংবা বিলবোর্ড স্থাপন করলে সেসব প্রার্থীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি জানান, নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযারী আগামী আট ডিসেম্বর মধ্যরাত পর্যন্ত কোনও প্রার্থী প্রচারণায় অংশ নিতে পারবেন না। তবে তারপর থেকে প্রার্থীরা বৈধ প্রচারণায় অংশ নিতে পারবেন।

হাজিগঞ্জ পৌর নির্বাচনের সহকারী রির্টানিং অফিসার নিশাত পারভীন জানান, এবারের পৌর নির্বাচনে আচরণবিধি মানা হচ্ছে কিনা তা অতীতের যেকোনও সময়ের চেয়ে আরও নজরদারিতে রাখা হচ্ছে। কোনও প্রার্থী আচরণবিধি ভঙ্গ করলে কমিশন  ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, ৬ মাসের জেল ছাড়াও প্রার্থীতা বাতিল করতে পারবে। 

৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ, হাজীগঞ্জ, কচুয়া, মতলব ও ছেঙ্গারচর পৌরসভার নির্বাচন।

/এসএস/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।