রাত ০৯:৫২ ; মঙ্গলবার ;  ২৫ জুন, ২০১৯  

চুল পড়ছে?

প্রকাশিত:

লাইফস্টাইল ডেস্ক।। 
পাতাঝরা দিনের শুষ্কতায় বিবর্ণ হয়ে পড়ছে ত্বক ও চুল। এ সময় চুল পড়ার সমস্যা বেড়ে যায় খুব বেশি। হাতের কাছে থাকা উপকরণ দিয়েই করতে পারেন চুলের পরিচর্যা। জেনে নিন চুল পড়া বন্ধ করতে কী করবেন- 

  • ডিমের কুসুম ও গ্রিন টি একসঙ্গে পেস্ট করুন। মিশ্রণটি মাথার তালুতে লাগান। ২০ মিনিট পর অল্প শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন চুল। চুল পড়া কমানোর পাশাপাশি চুলের বৃদ্ধি বাড়াবে এ হেয়ার প্যাকটি।
     
  • রাতে ঘুমানোর আগে নারিকেল তেলের সঙ্গে ভিটামিন-ই ক্যাপসুল মিশিয়ে মাথায় লাগান। পরদিন সকালে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন চুল।
     
  • এক কাপ পেঁয়াজের রসে সামান্য ফিটকিরি মেশান। মিশ্রণটি মাথার তালুতে লাগান। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন শ্যাম্পু দিয়ে। চুল পরা রোধ করবে এটি।
     
  • একটা পাকা কলার সঙ্গে একটি ডিমের কুসুম মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। মিশ্রণটি ৪০ মিনিট চুলে লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন। চুলের চাকচিক্য বাড়াবে এ হেয়ার প্যাকটি। পাশাপাশি চুল পড়া বন্ধ করবে।   
     
  • ১ চা চামচ রসুনের রস, মধু ও ডিমের কুসুমের সঙ্গে ২ চা চামচ অ্যালোভেরার রস মেশান। মিশ্রণটি ১ ঘন্টা মাথায় রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।  
     
  • ডিমের কুসুম ও গ্রিন টি একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট করুন। মিশ্রণটি মাথার তালুতে লাগান। ২০ মিনিট পর অল্প শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন চুল। চুল পড়া কমানোর পাশাপাশি চুলের বৃদ্ধি বাড়াবে এ হেয়ার প্যাকটি।
     
  • রাতে ঘুমানোর আগে নারিকেল তেলের সঙ্গে ভিটামিন-ই ক্যাপসুল মিশিয়ে মাথায় লাগান। পরদিন সকালে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন চুল।
     
  • এক কাপ পেঁয়াজের রসে সামান্য ফিটকিরি মেশান। মিশ্রণটি মাথার তালুতে লাগান। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন শ্যাম্পু দিয়ে। চুল পরা রোধ করবে এটি।
     
  • একটা পাকা কলার সঙ্গে একটি ডিমের কুসুম মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। মিশ্রণটি ৪০ মিনিট চুলে লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন। চুলের চাকচিক্য বাড়াবে এ হেয়ার প্যাকটি। পাশাপাশি চুল পড়া বন্ধ করবে।    
     
  • ১ চা চামচ রসুনের রস, মধু ও ডিমের কুসুমের সঙ্গে ২ চা চামচ অ্যালোভেরার রস মেশান। মিশ্রণটি ১ ঘন্টা মাথায় রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।  


তথ্য: বোল্ডস্কাই
ছবি: সংগ্রহ 


/এনএ/ 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।