ভোর ০৬:২১ ; শনিবার ;  ১৯ অক্টোবর, ২০১৯  

ভাবিকে পুড়িয়ে হত্যা করল দুই দেবর

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

কুমিল্লা প্রতিনিধি।।

কুমিল্লার তিতাস উপজেলার জিয়ারকান্দি গ্রামে দুই যুবকের বিরুদ্ধে ভাবিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার বিকালে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটি চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত গৃহবধূর নাম ইয়াছমিন আক্তার(২৫)। তিতাস উপজেলার জিয়ারকান্দি গ্রামের মোতালেব মিয়ার স্ত্রী তিনি। অভিযুক্ত দুই দেবর হলেন জিয়ারকান্দি গ্রামের নাজিম উদ্দিনের ছেলে বাবুল মিয়া ও আলী মিয়া।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, জিয়ারকান্দি গ্রামের আবদুল মোতালেবের দুই ভাই মাদকাক্ত বাবুল ও আলী মিয়ার সঙ্গে তাদের ভাবি ইয়াছমিন আক্তারের (২৫) নিয়মিত ঝগড়া হতো। এর জের ধরে মোতালেব মিয়া বাড়িতে না থাকা অবস্থায় শুক্রবার রাত ৩টার দিকে ইয়াছমিনকে ঘরের পেছনে নিয়ে হাত-পা বেঁধে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে।

ইয়াছমিনের বাবা ইব্রাহিম মিয়া বলেন, দুই যুবক মাদকাসক্ত ছিল। তারা কাজ করত না,এ নিয়ে কথা বললে আমার মেয়েকে তারা মারধর করত। জামাই মোতালেব মিয়া ভাঙ্গারি ব্যবসা করে। সেদিন বাড়িতে না থাকায় তারা আমার মেয়েকে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে মারে।

তিতাস থানার সেকেন্ড অফিসার শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, দুই মাদকাসক্ত দেবর পারিবারিক কলহের জেরে ইয়াছমিনকে আগুনে দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। 

/এসএস/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।