রাত ০৩:৫৩ ; মঙ্গলবার ;  ১২ নভেম্বর, ২০১৯  

সবাই সহযোগিতা করছে, কোনও কোন্দল নাই: এনবিআর চেয়ারম্যান

প্রকাশিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট॥

আগের অর্থ বছরগুলোর প্রথম প্রান্তিকে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা কম ধরা হয়েছিল। পরে বাড়ানো হয়েছিল। কিন্তু এবার রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা প্রতি প্রান্তিকে সমান ধরা হয়েছে। তাই কিছুটা ঘাটতি হয়েছে। এনবিআরে কোনও কোন্দল নাই। রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা আদায়ে সবাই সহযোগিতামূলকভাবে কাজ করে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান।

চেয়ারম্যান বলেন, ২০১০-১১ অর্থবছরে প্রথম প্রান্তিকে রাজস্ব আদায় হয়েছিল ১৫ হাজার কোটি টাকা। গত ২০১৪-১৫ অর্থবছরে প্রথম প্রান্তিকে আদায় হয়েছে ২৮ হাজার কোটি টাকা। এবার ২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রথম প্রান্তিকে আদায় হয়েছে ৩১ হাজার কোটি টাকা।

বুধবার এনবিআরের সম্মেলন কক্ষে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (ডিসিসিআই) ট্যাক্স গাইডের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ সব কথা বলেন তিনি।

এর আগে ডিসিসিআইয়ের সভাপতি হোসেন খালেদ বলেন, ঢাকার ভেতরে প্রতিটি কর অঞ্চলের দু-তিনটি সার্কেলে কর সচেতনতা বৃদ্ধিতে পদক্ষেপ নিতে পারলে কর অঞ্চল বাড়ানো সম্ভব। এ ছাড়া জেলা চেম্বারগুলো সংশ্লিষ্ট জেলায় কর সচেতনা বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখতে পারে। এ জন্য এনবিআর-ব্যবসায়ীদের সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে।

ডিসিসিআইয়ের পরিচালক আবদুস সালাম বলেন, পুরান ঢাকায় অনেক ব্যবসায়ী রয়েছে। তারা ট্যাক্স দিতে চায়। কিন্তু সার্কেলের চাহিদা মতো ট্যাক্স না দিলে মামলা করার হুমকি দেওয়া হয়। মালামাল জব্দ করা হয়। ব্যবসাতো আর সব সময় এক রকম থাকে না। তাই সঠিকভাবে ট্যাক্স আদায় করতে হলে করদাতাদের নিয়ে সার্কেলগুলোর আলাপ-আলোচনা করা দরকার। ব্যবসায়ীদের ট্যাক্স দিতে আপত্তি নেই, কিন্তু হয়রানির শিকার হতে চায় না।

/এসআই/ এফএইচ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।