রাত ০৯:৫৮ ; শুক্রবার ;  ১৮ অক্টোবর, ২০১৯  

ইমিগ্রেশন : স্বেচ্ছানির্বাসনের আদিঅন্ত

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

জাহিদ সোহাগ ॥ তৃতীয় বিশ্বের বহু দেশের মতো বাংলাদেশ থেকেও অনেক মানুষ স্বচ্ছলতার আশায় বিদেশে পাড়ি জমান- তাদের ভাষায় সন্তানদের নিরাপদ ভবিষ্যতের জন্য- নিজ দেশ ভিটামাটি ছেড়ে যাওয়া এইসব মানুষের মনে যেমন উদ্বাস্তু-উন্মুল মানসিকতা কাজ করে তেমনি সেই সুদূরের হাতছানি পেতে অবলম্বন করতে হয় নানা অবৈধ ও অনৈতিক কাজ। এ বছর বইমেলায় প্রকাশিত কানাডা প্রবাসী সালমা বাণীর ‘ইমিগ্রেশন’-এ কবিরের কানাডা যাত্রা থেকে শুরু করে সেখানকার জীবনে টিকে থাকার সংগ্রামে নানা মাত্রিক চরিত্রের মানুষের পোর্টফোলিও উঠে এসেছে। তাঁর যাত্রাই শুরু হয় ‘কলাকাটা পাসপোর্ট’ নিয়ে। যেখানে অন্যের ছবির মাথা কেটে কবিরের মাথা লাগিয়ে দেওয়া হয়। চেকপোস্ট পার হতে কবিরের চরম মানসিক চাপ- পেছনে জমিজমা বিক্রি করে এতগুলো টাকা জোগাড় করা ও তার পরিবারের উদ্বিগ্ন মুখগুলো ফ্ল্যাশব্যাকে বারবার চলে আসে। যদিও সেই ভালো ভাবেই কানাডার বরফ-মাটিতে পা রাখে কিন্তু দেখা মেলে অন্য আর এক বাঙালি জীবন। যখন একটি শপিংমলে কবিরের বন্ধু রবি ও চুন্ন চৌধুরীর সাক্ষাৎ হয় তখন কবির জানতে পারে এখানে আইনগত বৈধতা পেতে কত ফন্দি-ফিকির করতে হয়। গুন্ডা ভাড়া করে স্ত্রীকে ধষর্ণের মতো ঘটনাও আছে। উপন্যাসে চুন্নু চৌধুরী এক অসাধারণ চরিত্র। কখনো মনে হয় লেখক বিশেষভাবে এই চরিত্রটি নির্মাণ করেছেন তার মধ্য দিয়ে বাঙালি মানসিকতা আদিঅন্ত খুঁজে পেতে। চুন্নু চৌধুরী তার বিদেশি প্রেমিকার দেহপোড়াছাই নিয়ে তুকতাক করে। মানুষকে সম্মোহিত করে রাখে। তার সম্মোহন থেকে রবি বের হতে পারে না এত অপমান সহ্য করার পরও। এই চিত্র শুধু বাংলাদেশিদের জীবনেও নয়। যেমন স্যান্দ্রা ইন্ডিয়ান আনীলের সঙ্গে অ্যানাল সেক্সে জড়িয়ে পড়ে, আনীল তাকে কথা দিয়েছে নাগরিকত্ব পাবার জন্য সে সহযোগিতা করবে। এমন বহুবিধ বিকৃতি যৌনতা এসেছে স্বেচ্ছানির্বাসনে যাওয়া বাঙালিদের জীবনে। সবশেষে মনে হয় তাদের জীবনের প্রাপ্তিটা শূন্যতা দিয়ে রচিত। ইমিগ্রেশন। সালমা বাণী। প্রকাশকাল : ফেব্রুয়ারি ২০১৪। প্রকাশক : সংবেদ। প্রচ্ছদ : সব্যসাচী মিস্ত্রী। মূল্য : ১০০০ টাকা।

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।