রাত ০৫:০৭ ; সোমবার ;  ১৬ জুলাই, ২০১৮  

জাগৃতি প্রকাশনীর দীপনকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

জাগৃতি প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ফয়সাল আরেফিন দীপনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত ফয়সল আরেফিন দীপন বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ও লেখক আবুল কাসেম ফজলুল হকের একমাত্র ছেলে। তার মালিকানাধীন জাগৃতি প্রকাশনী অভিজিতের ‘বিশ্বাসের ভাইরাস’ নামের জনপ্রিয় বইটি প্রকাশ করেছিল।

শনিবার সন্ধ্যায় শাহবাগের আজিজ মার্কেটের তিনতলায় জাগৃতির অফিস থেকে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকেরা জানান তিনি আগেই মারা গেছেন। লালমাটিয়ায় শুদ্ধস্বর প্রকাশনীর প্রকাশক টুটুলসহ তিন লেখকের ওপর হামলার ঘণ্টা চারেকের মধ্যেই কুপিয়ে হত্যা করা হলো দীপনকে।

শাহবাগ থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক জানান, ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়েছে। সেখান থেকে তার লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করে।

লালমাটিয়ায় শুদ্ধস্বর প্রকাশনীর প্রকাশক টুটুলসহ তিন লেখকের ওপর হামলার ঘণ্টা চারেকের মধ্যেই কুপিয়ে হত্যা করা হলো জাগৃতি প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সাল আরেফিন দীপনকে।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে একুশের বইমেলা থেকে বের হওয়ার পথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা ও বিজ্ঞানমনস্ক লেখক অভিজিৎ​ রায়কে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। হামলায় আহত হন তাঁর স্ত্রী রাফিদা আহমেদ। জাগৃতি থেকে অভিজিৎ​ রায়ের ‘বিশ্বাসের ভাইরাস’ ও ‘অবিশ্বাসের দর্শন’ নামের দুটি বই প্রকাশিত হয়। আর শুদ্ধস্বর তাঁর লেখা ‘সমকামিতা: একটি বৈজ্ঞানিক এবং সমাজ-মনস্তাত্ত্বিক অনুসন্ধান’ ও ‘শূন্য থেকে মহাবিশ্ব’ নামে দুটি বই প্রকাশ করে।

/জেইউ/এমআর/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।