রাত ১২:১৪ ; শুক্রবার ;  ১৮ অক্টোবর, ২০১৯  

তামাক নিয়ন্ত্রণে নীতিমালা প্রণয়নে উদ্যোগী সরকার

প্রকাশিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

বিদ্যমান তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে নীতিমালা প্রণয়নে উদ্যোগী হয়েছে সরকার। আজ সোমবার মন্ত্রণালয়ে তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম সংক্রান্ত এক মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্বকালে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এ সংক্রান্ত খসড়া নীতিমালা দ্রুত প্রণয়নের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

সভায় মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশকে তামাকমুক্ত করতে সরকারের রাজনৈতিক সদিচ্ছা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরিবেশ উন্নয়ন আন্দোলন নিয়ে বিশ্বে যে প্রশংসা অর্জন করেছেন তার মধ্যে তামাকমুক্ত পরিবেশের ধারণাও আছে। সরকারের সদিচ্ছা বাস্তবায়নে নীতিমালা তৈরি করা জরুরি।’

খসড়া নীতিমালা প্রণয়নের পর বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, সংশ্লিষ্ট স্টেকহোল্ডার এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সাথে আলোচনা করে তা চূড়ান্ত করারও নির্দেশনা দেন মন্ত্রী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, তামাকের আগ্রাসন যত বেশি প্রতিহত করা যাবে জনগণের স্বাস্থ্য তত বেশি সুরক্ষিত হবে। এদেশের জনগণের স্বাস্থ্যমান উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকার যেসব উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তা সফল করতে হলে সমাজ থেকে তামাক দূর করতে হবে। অসংক্রামক রোগ নির্মূলে সরকারের গৃহীত কার্যক্রমের সাফল্যও নির্ভর করে তামাকমুক্ত সমাজ গড়ার সফলতার ওপর ।

আগামী শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস-এ ভর্তির সময় ধূমপায়ী শিক্ষার্থীদের বিবেচনায় না আনার ঘোষণা পুনর্ব্যক্ত করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আগামী ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষ থেকে মেডিক্যালে ভর্তির সময় শিক্ষার্থীকে ধূমপান ও মাদকমুক্ত কিনা সে বিষয়ে প্রত্যয়নপত্র দাখিল করতে হবে। মেডিক্যাল কলেজ এবং স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানগুলোতে ধূমপানে বিদ্যমান নিষেধাজ্ঞা জোরালোভাবে কার্যকর করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে ইতোমধ্যে। তিনি বলেন, এমডিজি পরবর্তী টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশের নতুন কর্মসূচিতেও তামাকমুক্ত দেশ গড়ার কার্যক্রমে গতিশীলতা আনা হবে।

সভায় ইন্টারন্যাশনাল পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট সংসদ সদস্য সাবের হোসেন চৌধুরী, স্বাস্থ্য সচিব সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মোহাম্মদ নূরুল হক, জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) আবদুল মালেকসহ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য অধিদফতর, জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেল, ঢাকা আহ্সানিয়া মিশনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

 

/জেএ/এফএ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।