দুপুর ১২:৫০ ; বুধবার ;  ২২ মে, ২০১৯  

মালাইকার নাচে সালমানের আপত্তি, নিশ্চুপ আরবাজ!

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

সুরঞ্জনা শেখ।।

সেলিম খানের এই ছেলেটিকে সবাই চেনে রাগী হিসেবে। না, সালমান নন। তিনি আরবাজ খান। যার এক কথাতে খান মহলের অনেক কিছুই নড়েচড়ে যায়। শোলের লেখক সেলিম খানের কড়া শাসনের ফাঁক গলে তাই একমাত্র আরবাজই পেরেছিলেন মনের মানুষের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধতে। তাও আবার অন্য ধর্মের। তিনি মালাইকা অরোরা।

সে এক স্বপ্নের বিয়ে বৈকি! মালাইকার মাকে বশে আনতে সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের আরবাজ চার্চে গিয়েও বিয়ে করতে রাজি হয়েছিলেন। সেলিম খানও খুব বেশি আপত্তি করতে পারেননি। কারণ একটা সময় তিনিও সামাজিক গোঁড়ামিকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে ঘরে তুলেছিলেন ক্যাবারে আইটেম গার্ল হেলেনকে। বলা যায় তিনিই একমাত্র সফল ব্যক্তি ছিলেন যিনি ঐ আমলে দুই স্ত্রী এবং সব সন্তান নিয়ে সুখে শান্তিতে বসবাস করতে পেরেছেন। আজও আছেন একসঙ্গে। এসব গল্প ভক্তদের সবার জানা।

অজানা হলো বিয়ের এতোদিন পরের সুরকাটা গল্পটি। বিয়ের এতো বছর পর কেন বিচ্ছেদের ডামাডোল বাজছে আরবাজ-মালাইকার সংসারে? কোনও পরকীয়া? নাকি আরবাজের রাগ?  অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি মালাইকা-আরবাজ বিচ্ছেদের যে তীব্র গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে তার অন্যতম কারণ সালমান খান! বলিউড ভাইজান সালমান এবার সত্যিকারের ভাইজানের ভূমিকাতে নেমেছেন ছোট ভাইয়ের জীবনে।

শোনা গেছে, দীর্ঘ সময় ধরেই সালমানের আপত্তি ছিল মালাইকার জীবনযাপন নিয়ে। বিশেষ করে আরবাজের ছেলে এখন কৈশরে পা রেখেছে। তাই সালমান মনে করছেন মালাইকার এখন আর উত্তেজক পোশাক বা আইটেম নাচে-গানে অংশ নেওয়া ঠিক নয়। তাই বলিউড যখন মালাইকার ‘ম্যায় ঝান্ডু বাম হুয়ি’ গানের সুরে বেধড়ক নাচছে, তখন খান মহলে চলছে আপত্তি ঘোচাতে নানা রকমের মলমের ব্যবহার।

এ ব্যাপারে অবশ্য আরবাজ, মালাইকা বা সালমান কেউই মিডিয়ার সামনে মুখ খোলেননি। বরং আরবাজের সঙ্গে মালাইকা বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ঠিকই পৌঁছে যাচ্ছেন হাত ধরাধরি করে। ওদিকে বিগ বস হোস্ট সালমানও হেসে উড়িয়ে দিচ্ছেন তার ‘আপত্তির’ গুঞ্জনটি। এখন সময়ই বলে দেবে- খান পরিবার নিয়ে এটি স্রেফ গুঞ্জন নাকি আরেকটি নিশ্চুপ বিচ্ছেদেরে উপাখ্যান!

/এসএস/এমএম/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।