রাত ০৯:০৮ ; বৃহস্পতিবার ;  ২০ জুন, ২০১৯  

ক‌রিফুলার গী‌তে মুগ্ধ প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:

কু‌ড়িগ্রাম প্রতি‌নি‌ধি।।

বেলা তখন ১১টা ত্রিশ মি‌নিট। সদ্য বিলুপ্ত ছিটমহল দাশিয়ারছড়াবাসীর উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিচ্ছেন তার ঐতিহাসিক বক্তব্য। নতুন নাগ‌রিকত্ব পাওয়া মানুষগু‌লো তখন স‌ম্মো‌হিত হ‌য়ে শুন‌ছেন তা‌দের প্রাণ‌প্রিয় মু‌ক্তিদাতার কথা।  এমন সময় চো‌খে পড়‌ল বেগুনী র‌ঙের প্রি‌ন্টের শাড়ি প‌রি‌হিতা এক বৃদ্ধাকে। দে‌খে ম‌নে হ‌লো হয়‌তো প্রধানমন্ত্রীর কা‌ছে কিছু বলবেন। সে জন্য তার কা‌ছে যাওয়ার সু‌যোগ খুঁজ‌ছেন। এরপর আর অনেকক্ষণ তার দিকে কারও ম‌নো‌যোগ ছিল না।

কিন্তু বক্তব্য শেষ ক‌রে প্রধানমন্ত্রী যখন মঞ্চ থে‌কে নে‌মে সভাস্থল ত্যাগ কর‌বেন, ঠিক তখনই তার কা‌ছে কয়েকজন স্থানীয় মানুষ এগিয়ে গে‌লেন, একটু কাছ থে‌কে নি‌জে‌দের ম‌নের কথা বল‌তে। যদিও তখ‌নও প্রধানমন্ত্রী জা‌নেন না তা‌কে মুগ্ধ কর‌তে ওই বৃদ্ধার ম‌নোমুগ্ধকর মন্ত্র অপেক্ষা কর‌ছে। ওই সময় ভিড়ের মধ্য থে‌কে বেরি‌য়ে এলেন ৭০ বছর বয়সী ওই নারী। নাম তার ক‌রিফুলা। প্রধানমন্ত্রীর হাত ধ‌রে তা‌কে তিনি শোনা‌ন স্বর‌চিত এক‌টি গীত।  তাতেই মুগ্ধ হ‌য়ে প্রধানমন্ত্রী বু‌কে জ‌ড়ি‌য়ে নেন বৃদ্ধা‌ করিফুলাকে।

সভাস্থল থে‌কে বের হয়ে করিফুলাকে অনেক খোঁজাখুঁজি শে‌ষে দেখা মিল‌লো, কা‌লিরহাট বাজা‌রের শেষ প্রা‌ন্তে। নাম জানানোর পর প্রধানমন্ত্রী‌কে কী বল‌লেন, এমন প্রশ্নের জবাবে করিফুলা বাংলা‌ট্রি‌বিউন ব‌লেন, ‘বাবা, মাক পায়া খু‌শি‌তে ম‌নের ভিতরা থা‌কি গান ব্যা‌রে আসছে। কী গান কহিচি এলা ম‌নে নাই। গান শু‌নি মা আমাক বু‌কোত নি‌চে।'

কী গান করেছেন এমন প্রশ্নের জবাবে লাজুক হে‌সে করিফুলা শোনান সেই গান। ‘তু‌মি আমার মা জননী, জগৎ তরণী, বিদ্যু‌তের আলো পাইলাম, তোমাক পাইলাম মা।'

প্রধানমন্ত্রীকে গান শুনিয়ে করিফুলা এখন দাশিয়ারছড়ায় রীতিমতো তারকা। তার বা‌ড়ি দা‌শিয়ারছড়ার কামালপুর প‌শ্চিম পাড়ায়। সভাস্থ‌লে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী‌কে কাছ থে‌কে এক নজর দেখ‌তে, তার সঙ্গে একটু কথা বল‌তে। তার আশা পূরণ ক‌রে‌ছেন প্রধানমন্ত্রী। তাই খু‌শি হয়েই বা‌ড়ি ফি‌রে‌ছেন ক‌রিফুলা।

/এসএম/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।