রাত ০৯:৫৩ ; বুধবার ;  ১৭ অক্টোবর, ২০১৮  

ভেড়ার রেস

প্রকাশিত:

নাঈম রায়হান ভূঁইয়া।।

ষাঁডের লড়াই বা ঘোড়াদৌড়ের সঙ্গে সবাই পরিচিত। কিন্তু খেলাধুলার পেটেন্ট যে আলাদা করে কেবল ষাঁড় বা ঘোড়াকেই দেয়া হয়েছে, বিষয়টা এমন নয়। একটু বিনোদন আর খেলাধুলার ইচ্ছে হতেই পারে অন্য পশুদেরও। জমকালো আয়োজনে ব্রিটেনের শার্ক আইল্যান্ডে ভেড়া দৌঁড়  প্রতিযোগিতা দেখলে এমনটা মনে হবে আপনার। অবশ্য ব্রিটেন ছাড়াও নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়াসহ পৃথিবীর অনেক দেশেই এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে নিজ নিজ ভেড়াকে নিয়ে মাঠে যান ভেড়ার মালিকরা। অবশ্য মালিক না হলেও অংশ নেয়া যাবে প্রতিযোগিতায়। সেক্ষেত্রে আয়োজকদের সঙ্গে যোগাযোগ করে পছন্দের একটি ভেড়াকে স্পন্সর করতে হবে। বাঁশি বাজানো মাত্রই যেন দৌড় দেয় সেটা আগেই শেখানো হয় ভেড়ার পালকে।

মোট ছয়টি গ্রুপে ভাগ করে দিনব্যাপী ৬-৭টি রেস হয়। দুপাশে জাল বা অন্যকিছু দিয়ে অস্থায়ী দেয়াল তৈরি করে মাঠ সাজানো হয়। মজার বিষয় হলো উট বা ঘোড়ার পিঠে এখন যেমন রোবট জকি বসানো থাকে, তেমনি ভেড়ার পিঠে থাকে পুতুল সওয়ারি। ২০ মিনিটের খেলায় নির্দিষ্ট সীমা অতিক্রম করতে পারলেই জেতা যাবে ভেড়া দৌঁড়ের শিরোপা। প্রথম সাত প্রতিযোগীর জন্য রয়েছে ভেড়াদের পছন্দের সব সুস্বাদু আর দামি খাবার।

জার্মানিতে একই ধরনের উৎসব চলে আসছে দুশ বছর ধরে। ওই সময় রাজা লুদউইগ কুইন্সল্যান্ডে এ উৎসবের প্রচলন করেন। তবে ভেড়াদের এ দৌড় কেবল দেশে দেশেই সীমাবদ্ধ নেই, অলিম্পিকের বাড়তি আকর্ষণ হিসেবেও চলে দৌঁড়বিদ ভেড়াদের প্রদর্শনী।

/আরএফ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।