রাত ০৯:৫৭ ; শুক্রবার ;  ১৮ অক্টোবর, ২০১৯  

দাশিয়ার ছড়ায় দ্বিগুণ ঈদ

প্রকাশিত:

আরিফুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম।।

৬৮ বছরের দীর্ঘ সংগ্রামের পর নতুন রাষ্ট্র পরিচয় ও ঠিকানায় প্রথম ঈদ উদযাপন করলো সাবেক ছিটমহল দাশিয়া ছড়ার বাসিন্দারা। এর মধ্যে আবার প্রধানমন্ত্রীর সফরের খবরে ঈদ আনন্দে যোগ হয়েছে নতুনমাত্রা।

সাবেক ছিটমহল দাশিয়ার ছড়ায় এবার প্রধান ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৮টায়, সমন্বয় মধ্যপাড়া জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে। আনন্দ আর নতুন উদ্দীপনায় সবাইকে মাঠে আসতে দেখা যায়। এ ছাড়াও দাশিয়ার ছড়ার কালির হাট, পূর্বটারী, দোলাটারী, বানিয়াটারী, রাসমেলা, বটতলা, কামালপুরসহ অন্যান্য গ্রামে  আরও ১৫টি ঈদ জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়।

এবারের পশু কোরবানিতে ভিন্ন আমেজ খুঁজে পেয়েছেন দাশিয়ার ছড়ার অনেকে। সুরুজ আলী নামে সমন্বয় পাড়ার এক বাসিন্দা জানান, বিগত বছরগুলোতে হাটে গিয়ে গরু কিনতে নানা ঝামেলা হতো। ইজারাদারের কাছে ভুয়া নাম ঠিকানা লিখতে হতো। কিন্তু এবার তারা গরু কিনেছেন দাশিয়ার ছড়া, ফুলবাড়ি, কুড়িগ্রাম, বাংলাদেশের ঠিকানায়। বাজার থেকে গরু নিয়ে আসতেও পোহাতে হয়নি কোনও ঝামেলা।

সমন্বয় পাড়া মধ্যটারী গ্রামের লাভলী বেগম আর মৌসুমী খাতুন জানান, সন্তানদের নিয়ে তাদের এবারের ঈদ ছিল ভিন্ন আমেজের। এতদিন ভারতের ভূ-খণ্ডে থাকলেও, কখনও সেই দেশের কোনও রাষ্ট্রপ্রধান কিংবা এমপি-মন্ত্রী তাদের খোঁজ নিতে আসেননি।

দাশিয়ার ছড়ার বাসিন্দা আলতাফ হোসেন জানান, অক্টোবরের মাঝামাঝিতে প্রধানমন্ত্রী আসছেন শুনে আমাদের ঈদ আনন্দ দ্বিগুণ হয়েছে। এ খবর শুনে আমরা সমন্বয় কমিটির (বর্তমানে বিলুপ্ত) পক্ষ থেকে অতিরিক্ত একটি গরু কোরবানি দিয়ে এর মাংস দরিদ্রদের মাঝে বিতরণ করেছি।

এদিকে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ি উপজেলার সাবেক ছিটমহল দাশিয়ার ছড়ায় সফর করবেন। এ উপলক্ষে বিভিন্ন অবকাঠামোগত উন্নয়ন কাজ শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে ফুলবাড়ি উপজেলার গঙ্গাহাট থেকে দাশিয়ার ছড়ার কালিরহাট বাজার পর্যন্ত পাকা রাস্তা নির্মাণ শুরু হয়েছে। সদ্য বিলুপ্ত ছিটমহলগুলোর নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী তার সফরে দাশিয়ার ছড়ায় বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধনসহ বিভিন্ন অবকাঠামোর ভিত্তি স্থাপন করতে পারেন বলে জানা গেছে।

 

/জেবি/এফএ/

 

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।