রাত ০৫:২১ ; সোমবার ;  ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮  

শনিবার বসছে ফ্রিল্যান্সারদের আসর

প্রকাশিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ।।

সাফল্য এখন আর পুঁথিগত কিংবা জ্ঞানগর্ভের ওপরই নির্ভর করে না, বরং নির্ভর করে পরিচিতির ওপর। বর্তমানে গুগল আর ফেসবুকের যুগে প্রায়ই ব্যক্তিগত যোগাযোগকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়। শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৫টা হতে রাত ৮ টা পর্যন্ত রাজধানীর বনানীর কামাল আর্তাতুর্ক এভিনিউয়ে নিউজক্রেড-এর অফিসে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এতে সমবেত হবেন নিজ নিজ ক্ষেত্রে সফল ঢাকার শীর্ষ কয়েকজন কমিউনিটি প্রধান। অনুষ্ঠানে তারা ব্যক্তিগত যোগাযোগ বৃদ্ধির ক্ষেত্রে নিজেদের জ্ঞান ও পদ্ধতি বক্তব্যের মাধ্যমে তুলে ধরবেন।

আপনি যদি ফ্রিল্যান্সার হয়ে থাকেন কিংবা ফ্রিল্যান্সিংয়ের জগতে প্রবেশ করবেন বলে ভাবছেন তাহলে এই ইভেন্টটি আপনার জন্য। যারা ঢাকায় ফ্রিল্যান্সার এর খোঁজ করছেন বা কাজ করাতে চান, তাদের জন্যও এটি একটি চমৎকার মিলনমেলা।

ফ্রিল্যান্সারস নাইট-এর আলোচ্যসূচি

১.  মাছটি কিভাবে ধরবেন

একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে, সবাই অনেক চেষ্টা করে সেরা ক্লায়েন্ট পাওয়ার জন্য। এটা ঠিক নদীতে সবচেয়ে বড় মাছটি ধরার মতো। এই সেশনে শেখানো হবে ভালো ক্লায়েন্ট পাওয়ার কলাকৌশল।

বক্তা- রুপক চৌধুরী প্রতিক, প্রশাসন, ওয়ার্ডপ্রেসিয়ান ও পিএইচপি এক্সপার্টস।

 

২. শক্তিশালী কমিউনিটির প্রভাব

সবারই অনেক প্রশ্ন থাকে ও গুগলে, বিভিন্ন ফোরামে অথবা অন্য কোনও সাইটে খোঁজ করে। যেমন-স্টেকএক্সচেঞ্জ। এই সেশনে শক্তিশালী কমিউনিটির প্রভাব ও কেন কমিউনিটিতে সক্রিয় অংশগ্রহণকারী হওয়া দরকার-এ বিষয়ে জানানো হবে। 

বক্তা- প্রমি নাহিদ, সমন্বয়কারী- চাকরি খুঁজব না চাকরি দেব।

 

৩. নিজের দক্ষতা কিভাবে বিক্রি করবেন 

অনেক পরিশ্রম করেছন সেরা ক্লায়েন্টের নজর কাড়ার জন্য কিন্তু কিছুতেই তা সম্ভব হচ্ছে না। এজন্য নিজেকে সেরা সম্পদে পরিণত করা ও সেরা দাম নিশ্চিত করার কাজটি গুরুত্বপূর্ণ।

বক্তা- রিফাত আহমেদ, পেওনিয়ার বাংলাদেশ।

 

৪.  অনলাইন পেশা – সুযোগ ও চ্যালেঞ্জ

অনলাইন পেশায় দৈনন্দিন নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ এর সম্মুখীন হতে হয়। এক্ষেত্রে কিছু চ্যালেঞ্জ ও তা অতিক্রম করার বিষয়ে বক্তব্য রাখা হবে এই সেশনে।

বক্তা- মো. শফিউল আলম, প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী প্রধান, বিল্যান্সার

 

৫. প্রতিষ্ঠানের যাত্রা

তিন বছর আগে পাঁচ তরুণ উদ্যোক্তার একটি দল যাত্রা শুরু করে। অভিজ্ঞ কমান্ডোর ন্যায় তারাও বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ পার করে (যেমন- সঠিক নির্দেশনা ঠিক করা, আইনি কাঠামো নির্বাচন করা, যন্ত্রপাতি এবং সরঞ্জাম এর পর্যাপ্ত ব্যবহার করা, সঠিক কর্মী নিয়োগ ইত্যাদি)। জিততে থাকে সব ইন্টারনেট মার্কেটিং এবং ওয়েব ডেভেলপমেন্ট যুদ্ধ। হোক সেটা ছোট ভিত্তিতে সূচনাকারী প্রতিষ্ঠান থেকে বড় বড় কোম্পানির। বর্তমানে তাদের আছে ২৫ জনের একটি নিয়মিত দল। এছাড়াও চুক্তিভিত্তিক কর্মী যারা নিশ্চিত করে সেরা মানের কাজ। এই প্রতিষ্ঠানটি কিভাবে যাত্রা শুরু করলো, বেড়ে উঠলো ও তাদের ভবিষ্যত পরিকল্পনা জানতে হলে যোগ দিন ডিএনএন-ফ্রিল্যান্সার নাইটে।

বক্তা- ডেভসটিম।

 

৬. দেয়ালের অন্য পাশ (কিভাবে নিয়োগকারী ফ্রিল্যান্সার নির্বাচন করেন)

একজন ব্যবসায়ী যিনি নিয়মিত ওডেস্ক ও ইল্যান্স (বর্তমানে আপওয়ার্ক) ব্যবহার করে ২০০৬ সাল থেকেই সমগ্র পৃথিবী জুড়ে ফ্রিল্যান্সার নিয়োগ করে আসছেন। তিনি বলবেন তার ফ্রিল্যান্সার নির্বাচন করার চ্যালেঞ্জ ও কঠিন সিদ্ধান্তগুলোর নেওয়ার কিছু মজার গল্প। এই সুবর্ণ সুযোগ খুব কম নিয়োগকারী দিয়ে থাকেন। সুতরাং ফ্রিল্যান্সারদের অবশ্যই এই ইভেন্টে অংশগ্রহণ করা উচিত।

বক্তা- সাজিদ ইসলাম, প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী প্রধান, হাবঢাকা।

ফ্রিল্যান্সার নাইট সম্পর্কে যে কোনও বিষয়ে যোগাযোগ করা যাবে- dnn@hubdhaka.com  ইমেইল ঠিকানায়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য ভিজিট করতে পারেন https://www.facebook.com/events/1140847869265505/

 

/এআই /এএ/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।