বিকাল ০৫:৪১ ; শনিবার ;  ২১ জুলাই, ২০১৮  

‘কৃষি আদালত প্রতিষ্ঠা না হলে কৃষকদের জোট গঠন করবো’

প্রকাশিত:

 বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

‘৯ম সংসদে কৃষি আদালতের প্রস্তাব উপস্থাপন করি। কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী এর প্রয়োজনীয়তাও স্বীকার করেন। পরের অধিবেশনে তা উপস্থাপন করার পরামর্শ দেন তিনি।’ এমনটা জানিয়েছেন রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর রিপোর্টার্স ইউনিটির গোলটেবিল মিলনায়তনে জাতীয় কৃষি পর্যালোচনা কমিটি আয়োজিত ‘কৃষি আদালত: ন্যায়বিচার ও কৃষি সম্পদে কৃষকের অধিকার প্রসঙ্গে’ এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব তথ্য জানান।

বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কৃষি আদালতের প্রয়োজনীতা অনুধাবন করে বলেন, ‘সংসদে যদি কৃষি আদালতের প্রস্তাব পাস না হয়, তাহলে আমি জাতীয় সংসদে ব্যক্তিগতভাবে কৃষি আদালতের প্রস্তাব উপস্থাপন করবো। আশা করি তা বিপুল ভোটে সংসদে পাস হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘যদি অধিবেশনে প্রস্তাবটি পাস না হয় তাহলে আমরা কৃষক ও কৃষক সংগঠনগুলোকে নিয়ে জোট গঠন করবো।’

এর আগে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, ইনসিডিন বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক একেএম মাসুদ আলী। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, কৃষি আদালতের প্রতিষ্ঠা দেশের কৃষক জনগোষ্ঠীর জন্য ন্যায়বিচার প্রাপ্তি নিশ্চিত করার মাধ্যমে কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি ও গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর আয় বাড়াতে ইতিবাচক অবদান রাখবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. খন্দকার শামসুল হক রেজা, বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক জায়েদ ইকবাল খান, লা ভিয়া ক্যাম্পেচিনার দক্ষিণ এশিয়ার সমন্বয়কারী বদরুল আলম প্রমুখ।

/এসআইএস/এফএ/

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।