সকাল ০৯:৩৩ ; বুধবার ;  ১৪ নভেম্বর, ২০১৮  

কার জন্য কেমন পোশাক

প্রকাশিত:

লাইফস্টাইল ডেস্ক।।

পোশাকের মাধ্যমে ফুটে ওঠে একজনের ব্যক্তিত্ব ও রুচি। উপযুক্ত পোশাক নির্বাচনের আগে শারীরিক কাঠামোর দিকে নজর দেওয়া জরুরি। কোন স্বাস্থ্যে কেমন পোশাক মানানসই সে বিষয়ে জানাচ্ছেন ফ্যাশন ডিজাইনার সারাহ দীনা।  

স্বাস্থ্য ভালো যাদের
যাদের স্বাস্থ্য একটু ভালো তারা খুব আঁটসাঁট ও বড় প্রিন্টের পোশাক এড়িয়ে চলুন। পোশাকে কুঁচি থাকলেও বেমানান দেখাবে। মোটা স্বাস্থ্যের পাশাপাশি যাদের উচ্চতাও একটু কম তারা লম্বালম্বি প্রিন্টের পোশাক পরুন। ছোট ছোট ফ্লোরাল প্রিন্টেও বেশ দেখাবে। খুব উজ্জ্বল রঙ না পরে ন্যাচারাল রঙের পোশাক পরুন। পোশাকের উপরে বেল্ট পরতে চাইলে পোশাকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে পরলে ভালো দেখাবে। কলার দেওয়া গলা না পরে গোল বা ভি গলা পরুন যেন আঁটসাঁট না লাগে। স্বাস্থ্য ভালো হলে ঢিলেঢালা হাতা না পরে চাপানো হাতা পরুন।

স্বাস্থ্য খারাপ হলে
শুকনা স্বাস্থ্য যাদের তারা কলার দেওয়া পোশাক পরুন। পিঠ ঢাকা পোশাকে স্বাস্থ্য অনেকটাই স্বাভাবিক দেখাবে। পাশাপাশি বেছে নিতে পারেন লাল, নীল, কমলার মত উজ্জ্বল রঙ। এ ধরণের স্বাস্থ্যে ঘটি হাতা মানিয়ে যায় বেশ। কুঁচি দেওয়া পোশাক ও বড় বল প্রিন্টের পোশাক পরলে স্বাস্থ্য ভালো দেখায়। অনেকে বেল্ট পরতে পছন্দ করেন। খারাপ স্বাস্থ্য হলে পোশাকের সঙ্গে কনট্রাস্ট করে বেল্ট পরুন। সুন্দর দেখাবে।      

খাটো উচ্চতায়
উচ্চতায় খাটো যারা তাদের লম্বা ঝুলের পোশাক পরলে আরও খাটো দেখায়। হাঁটুর অল্প নিচ পর্যন্ত ঝুলের পোশাক বেছে নিন তারা। পোশাকে লম্বালম্বি ডিজাইন থাকলেও ভালো দেখাবে।

উচ্চতা বেশি হলে
যাদের উচ্চতা বেশি ও তুলনামূলক স্বাস্থ্য ভালো তারা আঁকাবাঁকা প্রিন্টের পোশাক বেছে নিন। খুব গাঢ় রঙ না পরে হালকা রঙ পরুন। মানিয়ে যাবে বেশ।
 

জেনে নিন

  • প্রচন্ড গরমে গাঢ় রঙের পোশাক অস্বস্তিতে ফেলে দেয়। তাই ভারি কাজ করা গাঢ় রঙের পোশাক দৈনন্দিন কাজে বের হওয়ার সময় না পরলেই ভালো করবেন। 
     
  • পোশাকের সঙ্গে অন্যান্য অনুষঙ্গ ঠিকঠাক খাপ খাচ্ছে কিনা সেদিকে নজর দেওয়া জরুরি। না হলে পুরো পোশাকই বেমানান দেখাবে।
     
  • পোশাক বাছাইয়ের ক্ষেত্রে আরামকে প্রাধান্য দিতে হবে সবার আগে।   
     

মডেল: মারিয়া
ছবি: সাজ্জাদ হোসেন

/এনএ/

 

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।