রাত ১১:৫৯ ; সোমবার ;  ১৬ জুলাই, ২০১৮  

ধ্বংসের পথে মহাবিশ্ব!

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বিদেশ ডেস্ক।।

দর্শন বলছে, দৃশ্যমান কোনও কিছু স্থায়ী নয়। যা দেখা যায়, তা এক সময় শেষ হবেই। বিজ্ঞান বলে পরিবর্তন, পুরোপুরি ধ্বংস বলে কিছু নেই। তো ভাষার মারপ্যাঁচ যেমনই হোক, এই চেনা মহাবিশ্বটা যে আজীবন এমনটা থাকছে না, এটা অবধারিত। আর সেই ধ্বংসের পথে মহাবিশ্বটার হাঁটা শুরু হয়ে গেছে এখন থেকেই । তবে এখুনি লোটাকম্বল গোটানোর দরকার নেই। সময় আছে ঢের। পৃথিবীর ক্যালেন্ডারে সময় আছে আরও ১০ হাজার কোটি বছর। অস্ট্রেলীয় একদল গবেষক সম্প্রতি এমনটাই জানিয়েছেন।

অস্ট্রেলিয়ার ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর রেডিও অ্যাস্ট্রোনমি রিসার্চ (আইসিআরএআর)-এর গবেষকরা এই তথ্য জানান। তারা প্রায় দুই লাখ ছায়াপথ থেকে নিগর্ত শক্তি পরিমাপ করেছেন। পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী সাতটি টেলিস্কোপ ব্যবহার করে ছায়াপথগুলো ও সেগুলোর কার্যকলাপ পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে।

ছায়াপথগুলো প্রায় ২০০ কোটি বছর আগে যে পরিমাণ শক্তি নির্গত করতো এখন তার অর্ধেক নির্গত হয় বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। ছায়াপথগুলো থেকে শক্তি নির্গত হওয়ার হার ক্রমাগত কমছে বলেও জানান তারা।

আইসিআরএআর এর সদস্য সিমন ড্রাইভার জানান, গবেষণার ফল ‘আতঙ্কজনক’। তবে এখনও আমাদের হাতে অনেক সময় আছে। ধ্বংসের প্রক্রিয়া চলবে খুব ধীরে। তারা থেকে আলো উৎপাদন বন্ধ হতে এখনও অন্তত ১০ হাজার কোটি বছর লাগবে।’

মহাবিশ্বের শক্তি ক্রমশ ক্ষয়ে আসার বিষয়টি ১৯৯০ এর দশকের শেষ দিকে প্রথম বিজ্ঞানীদের নজরে আসে। তবে নতুন এই গবেষণায় দেখা যাচ্ছে মহাবিশ্বের সবপ্রান্তেই ক্ষয় শুরু হয়েছে। সূত্র: এনডিটিভি।

/এফএস/এফএ/  
 

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।