রাত ০১:৪২ ; রবিবার ;  ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০  

আইসক্রিমের দুনিয়া হার্ট ওয়ার্ল্ড

প্রকাশিত:

লাইফস্টাইল প্রতিবেদক।।

ধানমন্ডির নিজাম শংকর প্লাজার দোতলার এককোণে ছোট্ট দোকান। কয়েকজন তরুণ ব্যস্ত ক্রেতাদের আইসক্রিম পরিবেশন করতে। দোকানের নাম হার্ট ওয়ার্ল্ড।    

আইসক্রিমের ছোট্ট দুনিয়াটি দুই বন্ধু সজীব আহমেদ ও তাহসিন রবের। দুজনই শিক্ষার্থী। সজীব পড়াশোনা করছেন নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে আর তাহসিন পড়ছেন এ লেভেলে। হার্ট ওয়ার্ল্ডের আনুষ্ঠানিক পথচলা শুরু হয়েছে মাত্র সপ্তাহখানেক আগে। তবে এরমধ্যেই ক্রেতাদের ভিড়ে দম ফেলার সুযোগ পাচ্ছেন না সজীব আর তাহসিন। পড়াশোনার ফাঁকে তাদের কাজে সাহায্য করছেন অন্য বন্ধুরাও। দোকানে বসার জায়গা কম বলে বাইরে দাঁড়িয়েই অর্ডার করছেন ক্রেতারা।

ওরিয়েল, কিটিওস, স্নিকোস, ফেইরি ডিলাইট- এই চারটি ফ্লেভারের আইসক্রিম পাওয়া যাচ্ছে হার্ট ওয়ার্ল্ডে। কিছুদিনের মধ্যেই আসছে রেড ভেলভেট ফ্লেভার। এতো কিছু রেখে আইসক্রিমই কেন? সজীব জানালেন, আইসক্রিম খেতে ভালো লাগে সবসময়ই। যখন দেশের বাইরে ছিলেন তখন কিটক্যাট খেতে খুব পছন্দ করতেন। তখন থেকেই ইচ্ছা ছিলো দেশেই এমন কিছু করার। হার্ট ওয়ার্ল্ডের বিশেষত্ব হচ্ছে এখানকার আইসক্রিম সবই হাতে তৈরি। আইসক্রিমের সঙ্গে যোগ করা হয় চকোলেট চিপস, মাঞ্চ, ওরিও, স্নিকারস, কিটক্যাটসহ বিভিন্ন টপিংস।
ক্রেতাদের আশাব্যঞ্জক সাড়া পেয়ে হার্ট ওয়ার্ল্ডকে বড় পরিসরে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবছেন সজীব আর তাহসিন। জানালেন খুব শিঘ্রিই কোল্ড কফি ও বিভিন্ন ধরণের সেক নিয়ে আসছে হার্ট ওয়ার্ল্ড।

ফেরার সময় একটি কাজের জারে রঙ বেরঙয়ের বল দেখে চোখ আঁটকে গেলো। সজীব জানালেন এগুলো বাবলগাম। ক্রেতাদের জন্য এটি হার্ট ওয়ার্ল্ডের গিফট। আইসক্রিম খাওয়া শেষে পছন্দমতো সবাই একটি করে নিয়ে যেতে পারবেন বাবলগাম। 


/এনএ/ আরএফ

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।