বিকাল ০৫:০৬ ; মঙ্গলবার ;  ১৫ অক্টোবর, ২০১৯  

টাটকা কাঁচা মরিচের অভাবনীয় উপকারিতা

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

স্বাস্থ্য ডেস্ক।।

ক্যানসারসহ নানা রোগ প্রতিরোধই কেবল নয়, কাঁচা মরিচ পারে মানুষের যৌবন ধরে রাখতে, আয়ু বাড়াতে। সাম্প্রতিক বিভিন্ন গবেষণা তেমনটিই প্রমাণ করেছে।

চলতি মাসেই চীনের একদল গবেষক বলেছেন, মশলাদার খাবার মানুষের মৃত্যু ঝুকিঁ কমায়। বিশেষ করে টাটকা মরিচ মানুষের মৃত্যুর ঝুঁকি কমিয়ে আয়ু বাড়াতেও সাহায্য করে। বুধবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, চীনের এই গবেষকরা সাত বছর ধরে সেদেশের প্রায় পাঁচ লাখ মানুষের খাদ্যাভ্যাস পর্যবেক্ষণ করেছেন। গবেষণায় তারা দেখেছেন, যারা প্রায় প্রতিদিন মশলাদার খাবার খায় তাদের মৃত্যুর ঝুঁকি যারা সপ্তাহে একদিনেরও কম মশলাদার খাবার খায় তাদের তুলনায় ১৪ শতাংশ কম।

গবেষকরা জানিয়েছেন, তাদের এই গবেষণার তথ্য শুধু পর্যবেক্ষণের ভিত্তিতে পাওয়। তারা এ নিয়ে আরও বিশদ গবেষণার আহ্বান জানিয়েছেন।

প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, মশলাদার খাবারের সঙ্গে মৃত্যুর ঝুঁকি কমার রহস্যটা কোথায় সেটা গবেষকরা একেবারে সুনির্দিষ্ট করে বলতে পারছেন না। তারা ধারণা করছেন, রহস্যটা হয়তো লুকিয়ে আছে মরিচের মধ্যেই।

যুক্তরাষ্ট্রের ইনস্টিটিউট অব ক্যানসার রিসার্চ বলছে,কাঁচা মরিচের প্রধান উপাদান ‘ক্যাপসাইসিনের’ মধ্যে প্রচুর এন্টি-অক্সিডেন্ট । যা মুখে প্রচুর লালা তৈরি করে। এর রয়েছে ক্যানসার প্রতিরোধী গুণ। যে মরিচে যত ঝাল তা তত ক্যাপসাইসিন বহন করে। এছাড়া হজম শক্তি বৃদ্ধিতেও রয়েছে এর ভূমিকা। ক্যালরি পোড়াতে ও কাঁচা মরিচ কার্যকর।

আধা কাপ পরিমাণ কুচি কাঁচা মরিচে প্রায় ৮০০ ইউনিটের বেশি ভিটামিন এ রয়েছে। আর ভিটামিন এ দৃষ্টিশক্তির জন্য ভালো, রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। সমপরিমাণ কাঁচা মরিচ কুচিতে পাওয়া যায় প্রায় ১৮২ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি, যা একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের দৈনিক ভিটামিন সির চাহিদার সমান। তার মানে আধা কাপ কাঁচা মরিচ সালাদে বা অন্যান্য তরকারিতে ছড়িয়ে দিলে অন্য কোনো ভিটামিন ‘সি’ যুক্ত খাবার খাওয়ার দরকার পড়ে না।

গবেষকেরা বলছেন, কাঁচা মরিচের ভিটামিন সি তাপ, অতিরিক্ত আলো ও বাতাসের কারণে একটু একটু করে হারায়। তাই তাজা কাঁচা মরিচ না খেতে পারলে তা ঠাণ্ডা ও অন্ধকার জায়গায় সংরক্ষণ করা ভালো।  এ জন্য বাজার থেকে আনা তাজা কাঁচা মরিচ জিপার ব্যাগে মুখ আটকে ফ্রিজে রাখুন এবং তিন-চার দিনের মধ্যেই শেষ করতে চেষ্টা করুন।

শুধু একটি মাত্র কাঁচা মরিচে থাকে ১০৯ দশমিক ১৩ মিলিগ্রাম (১৮২%) ভিটামিন সি। একই ভাবে লাল মরিচে প্রতিটিতে থাকে ৬৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি (১০৮%)। প্রতি ১০০ গ্রাম সার্ভিং পরিমাণের মধ্যে থাকে ৪০ খাদ্যশক্তি। চর্বি, কোলেস্টেরল সোডিয়ামের পরিমাণ থাকে শূন্য শতাংশ। শর্করা ৩%, খাদ্য আঁশ ৬%, ভিটামিন এ ২৪%, ভিটামিন সি ৪০৪%, ক্যালসিয়াম ২%, আয়রণ ৭%, ভিটামিন ই ৩%, ভিটামিন কে ১৮%, থায়ামিন ৬%, রায়বোফ্লভিন ৫%, নিয়াসিন ৫%, প্যান্টোথেনিক এসিড ৫%, ভিটামিন বি-৬ ১৪%, ফলিক এসিড ৬%, পটাশিয়াম ১০% এবং মাঙ্গানিজ ১২% ইত্যাদি।
 

/এসএস/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।