সকাল ১০:৪১ ; রবিবার ;  ২১ এপ্রিল, ২০১৯  

ঈদের নামাজের আগেই ফিতরার টাকা পরিশোধের আহ্বান

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট।।

দেশের শান্তি ও উন্নয়ন, মুসলিম উম্মাহর হেদায়েত, হেফাজত কামনা করার মধ্য দিয়ে শেষ হয়‌‌‌েছে জুমাতুল বিদা । রমজান মাসের শেষ জুমার নামাজের শরিক হতে মসজিদে মসজিদে মুসল্লিদের ভিড় ছিল বেশি।

রমজান মাসের ২৯তম দিন ছিল শেষ শুক্রবার। এদিন জুমার নামাজকে জুমাতুল বিদা হিসেবে পালন করা হয়। জুমাতুল বিদা অর্থাৎ রমজান মাসের শেষ জুমার নামাজকে বিশেষভাবে গুরুত্ব দেন মুসলমানরা। শুক্রবার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ দেশের সব মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়েছে জুমার নামাজ। তবে এ উপলক্ষে প্রায় প্রতিটি খুতবায় ইমামরা ঈদের নামাজের আগেই ফিতরার টাকা পরিশোধের আহ্বান জানান এবং দরিদ্রদের ফিতরার টাকা পরিশোধের গুরুত্ব তুলে ধরেন।

দুপুর ১২টার পর থেকেই মসজিদের আসতে দেখা যায় মুসল্লিদের। মসজিদে জায়গা না হওয়ায় রাস্তায় নামাজ পড়তে দেখা গেছে অনেককে।

প্রতিটি মসজিদে জুমাতুল বিদা উপলক্ষে খুতবা পাঠ করা হয়। সাধারণত বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের খুতবা পাঠ করেন খতিব অধ্যাপক মাওলানা সালাহউদ্দিন। তবে তিনি অসুস্থ থাকায় বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের খুতবা পাঠ করেন পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা এহসানুল হক। জুমাতুল বিদা উপলক্ষে তিনিও ঈদের নামাজের আগেই ফিতরার টাকা পরিশোধের আহ্বান জানান। খুতবায় জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা এহসানুল হক বলেন, রমজান নাজাতের মাস। ধনী-গরিবের মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই। পাপ থেকে দূরে থেকে আমাদের ভাল কাজে আত্মনিবেদিত করতে হবে।

ফিতরার টাকা পরিশোধ প্রসঙ্গে মাওলানা এহসানুল হক বলেন, ঈদুল ফিতর নামাজে যাওয়ার আগেই ফিতরার টাকা পরিশোধ করা উচিত। এবার ইসলামিক ফাউন্ডেশন জনপ্রতি ৬০ টাকা ফিতরা নির্ধারণ করছে। আমরা সবাই ফিতরা প্রদান করলেই দরিদ্র মানুষের সংখ্যা কমবে।

জুমাতুল বিদা প্রসঙ্গে জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মাহফুযুল হক বলেন, এই দিনটি মুসলমানদের জন্য বিশেষ দিন। প্রতিটি মসজিদে দেশ ও জনকল্যাণে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। গুনাহের জন্য মাফের মুসলমানরা মোনাজাত করেন। যখন থেকেই রমজান মাসে রোজা রাখার বিধান শুরু হয় তখন থেকেই জুমাতুল বিদা পালন করা হয়। রাসুলুল্লাহ (সা.) এ দিনটির গুরুত্ব দিয়েছেন। এছাড়া রমজানের গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ফিতরা। ঈদুল ফিতর নামাজে যাওয়া আগেই ফিতরা আদায়ের বিধান রয়েছে।

/সিএ / এএইচ /

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।