দুপুর ০২:১৬ ; বৃহস্পতিবার ;  ২৭ জুন, ২০১৯  

সকালের গাড়ির দেখা নেই বিকেলেও

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

আমানুর রহমান রনি।।

ঈগল পরিবহন ও এস কে পরিবহনের দুটি গাড়ি গাবতলী বাস টার্মিনাল থেকে সকালে বরিশাল ও যশোরের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার কথা, কিন্তু গাড়ির দেখা নেই। যাত্রীরা সকাল থেকে অপেক্ষা করতে করতে ক্লান্ত, কাউন্টারম্যানদেরও জানা নেই কখন টার্মিনালে আসবে গাড়ি। যাত্রীরা উপায় না পেয়ে অভিযোগ করেছে টার্মিনালের র‌্যাব ক্যাম্পে। আধা ঘণ্টার মধ্যে বাস টার্মিনালে গাড়ি আনার জন্য কাউন্টারম্যানদের নির্দেশ দিয়েছে র‌্যাব।  

শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে একদল যাত্রী এসে র‌্যাব ক্যাম্পে অভিযোগ করে, বরিশালের ঈগল পরিবহনের ৮১৬ নম্বর গাড়িটি সকাল সাড়ে ১০টায় গাবতলী বাস টার্মিনাল থেকে বরিশালের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার কথা। কিন্তু বিকেল ৩টা পর্যন্ত গাড়িটি আসেনি।

ঈগল পরিবহনের যাত্রী রফিকুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে অভিযোগ করে বলেন, বরিশালের গৌরনদী যাওয়ার জন্য এক সপ্তাহ আগে টিকিট কেটেছেন তিনি। সেই অনুযায়ী আজ সকালে বাস টার্মিনালে এসেছেন। কিন্তু বিকেল ৩টা পর্যন্ত কোনও গাড়ি টার্মিনালে আসেনি।’

ওই বাসের আরেক যাত্রী সেন্টু অভিযোগ করেন, ‘আমি ঝালকাঠি যাওয়ার জন্য টিকিট কেটেছি। সকাল থেকেই বাস টার্মিনালে অপেক্ষা করছি। কখন গাড়ি আসবে তা জানি না। তাই র‌্যাবের কাছে অভিযোগ করতে এসেছি।’

এ ব্যাপারে ঈগল পরিবহনের কাউন্টারম্যান মনিরুজ্জামান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘গাড়ি সাভারের ওই পাশে আছে। গাড়ি ঘুরে আসলেই যাত্রীদের তুলে গাড়িটি আবার রওয়ানা দেবে।’

এদিকে, যশোর- চৌগাছা রুটের এস কে পরিবহনের সকাল ৮টার দিকের গাড়ি এখনও বাস টার্মিনালে নেই। সকাল থেকে অপেক্ষা করতে করতে ক্লান্ত যাত্রীরা। দিশা না পেয়ে ওই বাসের যাত্রী মো. আশরাফুল ইসলাম র‌্যাব ক্যাম্পে অভিযোগ করেন। তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, স্ত্রী শিউলিকে নিয়ে সকাল থেকে বাসের জন্য অপেক্ষা করছেন। কখন গাড়ি আসবে তা জানা নাই।

এস কে পরিবহনের মালিকের ছেলে মো. আরিফ র‌্যাব ক্যাম্পে এসে আধা ঘণ্টার সময় চেয়েছেন। এর মধ্যে বাস টার্মিনালে গাড়ি আসবে বলে তিনি জানান।

অপরদিকে অভিযোগ পাওয়া গেছে এক সিট দুজনের কাছে বিক্রি করার । ঢাকা চুয়াডাঙ্গা রুটের রয়েল পরিবহনের যাত্রী কানিজ ফাতেমা অভিযোগ করেন, তাকে যে সিট দেওয়া হয়েছে তা আরেকজনের কাছেও বিক্রি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে গাবতলী টার্মিনালে র‌্যাবের অস্থায়ী ক্যাম্পের দায়িত্বে থাকা উপসহকারী পরিচালক মো. ছানোয়ার হোসেন বলেন, ‘সব অভিযোগগুলো গুরুত্বের সঙ্গে গ্রহণ ও সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে।’

তিনি জানান, আজ ১২টি অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে গাড়ি বিলম্ব করে ছাড়া ও একই সিট দুজনের কাছে বিক্রি করার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।  তাছাড়া গাবতলী বাস টার্মিনাল ছিনতাইকারী ও চাঁদাবাজমুক্ত করা হয়েছে বলে জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।

/এএ / এএইচ /

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।