রাত ১২:৫৫ ; রবিবার ;  ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮  

অক্ষৌহিণী পরিচয় || জ্যোতির্ময় সরকার

প্রকাশিত:

‘অক্ষৌহিণী’র ৪র্থ সংখ্যা সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে। এই সংখ্যার প্রধান আয়োজন সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হককে নিয়ে একটি ক্রোড়পত্র এবং আশির দশকের নির্বাচিত কবি ও গল্পকারদের লেখা। দশটি লেখায় সৈয়দ হকের সাহিত্যকর্মের সার্বিক পর্যালোচনা পাওয়া যাবে। এই দশটি লেখার শিরোনাম ও লেখক হলেন— অনিরুদ্ধ কাহালি : সৈয়দ শামসুল হকের গল্প ‘বুকের মধ্যে আশাবৃক্ষ’; অনুপম হাসান : মুক্তিযুদ্ধ ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রসঙ্গ : সৈয়দ শামসুল হক; আহমেদ বাসার : সৈয়দ শামসুল হকের কবিতা : অভিজ্ঞতার শিল্প; পিয়াস মজিদ : সৈয়দ হকের স্মৃতিভাষ্যে জীবনের জ্যোছনা-ধবল অনুবাদ; ফারহানা আখতার : নূরলদীনের সারা জীবন : সমকালের কণ্ঠস্বর; মোস্তফা তারিকুল আহসান : সৈয়দ শামসুল হক : বাংলাদেশের প্রধানতম লেখক; রফিকউলাহ খান : সৈয়দ শামসুল হকের আত্ম-পরিক্রমা ও শিল্প-পরিক্রমা; রহমান হাবীব : সৈয়দ শামসুল হকের কবিতার নন্দন-বিশ্ব; সোহানা বিলকিস : যে কথা পরানের গহীন ভিতরে; হামীম কামরুল হক : খেলারাম খেলে যা: অস্তিত্বের ক্ষয় ও ক্ষরণের স্মারক। এছাড়াও রয়েছে সৈয়দ শামসুল হকের একটি সাক্ষাৎকার। 
‘বিশেষ আয়োজন’ শিরোনামে রয়েছে ‘আশির দশকের সাহিত্য’। তবে সেখানে গল্প-কবিতাই প্রকাশ করা হয়েছে। কেনো আশির দশক গুরুত্বপূর্ণ এ বিষয়ে কোনো পর্যালোচনা নেই। সম্পাদকীয়তে এ বিষয়ে বলা হয়েছে— ‘আশির দশকের সাহিত্যের ওপর একটি বিশেষ আয়োজন এই সংখ্যায় স্থান পেয়েছে। আশির দশক বাংলাদেশের সাহিত্যের একটি মোড়-বদলের সময়। স্বাধীনতা-অর্জনের এক দশক পরে এক ঝাঁক কবি-সাহিত্যিক বাংলা সাহিত্যে নতুন মাত্রা যোগ করতে সমর্থ হন। ...এই সময়ের প্রতিনিধিত্বশীল বারোজন কবির কবিতা ও দুইজন গল্পকারের গল্প এখানে স্থান পেয়েছে। ’
বারোজন কবি হলেন— খালেদ হোসাইন, গোলাম কিবরিয়া পিনু, জুয়েল মাজহার, মজিদ মাহমুদ, মাসুদ খান, রেজাউদ্দিন স্টালিন, শামসেত তাবরেজী, শাহীন রেজা, শিমুল মাহমুদ, সাজ্জাদ আরেফিন, সাজ্জাদ শরিফ এবং হারিসুল হক। 
দুইজন গল্পকার হলেন— ইমতিয়ার শামীম এবং মহীবুল আজিজ। 
এছাড়া অন্যান্য আয়োজনে রয়েছে গুচ্ছ কবিতা— লিখেছেন— ওবায়েদ আকাশ, চাণক্য বাড়ৈ, জুননু রাইন, নওশাদ জামিল, মজনু শাহ, শুভাশিস সিনহা, সাকিরা পারভীন এবং সৈকত হাবিব। 
পশ্চিম বাংলার গল্প— তন্বী হালদার, বিপুল দাস এবং মিতুল দত্ত। 
ত্রিপুরার গল্প— ঝুমুর পান্ডে।
গল্প— আসাদুল্লাহ্ মামুন হাসান, খোরশেদ আলম, দন্ত্যস রওশন এবং শফিকুর রহমান শান্তনু। 
অনুবাদ কবিতা—  রায়হান রাইন : মুনিয়া সামারার কবিতা; শাহানা আকতার মহুয়া : লিমারাকল এর কবিতা।
কবিতা— আবু দায়েন, আসাদ আহমেদ, জেবুননাহার জনি, নুরুন নাহার খান, ফজলুল হক সৈকত, রহিমা আফরোজ মুন্নী এবং শোয়াইব জিবরান। 
প্রবন্ধ— শামস্ আলদীন : নারায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়ের গল্প ‘পুস্করা’।    
গ্রন্থালোচনা— আহমেদ বাসার : রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ স্মারকগ্রন্থ ‘এই ধীর কমলাপ্রবণ সন্ধ্যায়’ : উদভ্রান্ত সময় ও কৌতুকবিলাসী  ঈশ্বর-ঈশ্বরী এবং শুভাশিস সিনহার ‘দ্বিমনদিশা’ : গহীনের দ্বিধা ও ধূম্রবাসনার চক্রব্যূহ। 
চিঠি— মো.  ইমামুল হুদা। 

 

‘অক্ষৌহিণী। সম্পাদক : আহমেদ বাসার। প্রচ্ছদ : মোস্তাফিজ কারিগর। প্রকাশকাল : এপ্রিল ২০১৫। মূল্য: ১০০ টাকা। পরিবেশক : বোধি প্রকাশন, ‘তক্ষশিলা’ ৪১, আজিজ সুপার মার্কেট,  শাহবাগ, ঢাকা। প্রাপ্তিস্থান : জনান্তিক, পাঠক সমাবেশ (আজিজ সুপার মার্কেট), প্রকৃতি (কাঁটাবন কনকর্ড এম্পোরিয়াম), ফ্যামিলি বুকস্ সেন্টার (এইচ এম প্লাজা, উত্তরা)। 

 

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।