রাত ০৩:১৪ ; রবিবার ;  ১৬ জুন, ২০১৯  

সংসদে নারীরা শোপিস: এরশাদ

প্রকাশিত:

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট॥

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ জাতীয় সংসদে নারীদের 'শোপিস' বলায় এমপিদের তীব্র ক্ষোভের মুখে পড়েছেন। সোমবার ২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

নারীদের শোপিস বলে মন্তব্য করার সময় এরশাদ তার স্ত্রী ও বিরোধীদলীয় নেত্রী রওশনের দিকে হাতের আঙুল দিয়ে ইঙ্গিতও করেন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী নারীদের নিয়ে মন্তব্য করা এরশাদের বক্তব্যের ওই অংশটি এক্সপাঞ্জ করেন। পরে সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা ও এইচএম এরশাদের স্ত্রী রওশন এরশাদ ওই বক্তব্যের জন্য সংসদে ক্ষমা চান।

বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে নারীর ক্ষমতায়ন প্রশ্নে এরশাদ বলেন, 'আমরা নারীর ক্ষমতায়নের কথা বলি। কথায় কথায় বলি আমাদের প্রধানমন্ত্রী নারী, স্পিকার নারী, সংসদের উপনেতা নারী, বিরোধী দলীয় নেত্রী নারী। এরা কিন্তু শোপিস।'

এরশাদ বলেন, 'বাইরে নারীরা অসহায়। ২১ ফেব্রুয়ারি শহীদ মিনারে কোনও নারী যায় না। কারণ তারা ভয় পায়। মধ্যরাতে নারীরা বাইরে যেতে ভয় পায়।'

এরশাদের বক্তব্যের সময় সংসদে উপস্থিত সদস্যরা প্রতিবাদ জানান। বিশেষ করে সরকারি দলের নারী সদস্যরা টেবিল চাপড়ে বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানান। কেউ কেউ দাঁড়িয়েও প্রতিবাদ করেন। এ সময় স্পিকার সবাইকে শান্ত হয়ে তার বক্তব্য শেষ করার সুযোগ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। এরপর এরশাদ বলেন, 'আমার বক্তব্যে কারও মনে কষ্ট পেলে আমি দুঃখিত।'

এরশাদের বক্তব্যকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন।
এরশাদের বক্তব্য শেষে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী তার (এরশাদের) নারীর ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে আলোচনাকালে অসংসদীয় শব্দগুলো এক্সপাঞ্জ (বাতিল) করা হবে বলেও জানান।

তিনি বলেন, 'মাননীয় সংসদ সদস্য ‍তার বক্তব্যে নারীদের নিয়ে মন্তব্যকালে বিশেষ করে জাতীয় সংসদের বিভিন্ন পদে আসীন নারীদের নিয়ে যে অসংসদীয় শব্দ ব্যবহার করেছেন সেগুলো কার্যপ্রণালী বিধির ৩০৭ বিধির আলোকে এক্সপাঞ্জ করা হবে।'

এদিকে রওশন এরশাদ তার বক্তব্যকালে এরশাদের নাম উল্লেখ না করে বলেন, 'সংসদে নারীদের নিয়ে যে মন্তব্য করা হয়েছে হয়ত শব্দ চয়নটি ঠিক ছিল না। সেজন্য আন্তরিকভাবে দু:খ প্রকাশ করছি।'

/ইএইচএস/এমআর/এফএস/

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।