বিকাল ০৫:৪৯ ; বুধবার ;  ১৬ অক্টোবর, ২০১৯  

ক্যান্সার ঘুরছে আপনার চারপাশে!

প্রকাশিত:

সম্পাদিত:

বিদেশ ডেস্ক॥

কীটনাশক, প্লাস্টিক বা হরহামেশা খাওয়া হয় এমন ওষুধপত্র-এর যে কোনওটি থেকেই আপনি আক্রান্ত হতে পারেন প্রাণঘাতী রোগ ক্যান্সারে। এমনকি কয়েকটি রাসায়নিকের সম্মিলিত প্রতিক্রিয়ায়ও আমাদের ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বহুগুণে বেড়ে যেতে পারে। ২৮টি দেশের ১৭৪ জন বিজ্ঞানী তাদের সাম্প্রতিক যৌথ এক গবেষণায় এই তথ্য জানিয়েছেন।

ক্যান্সারের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে এমন ৮৫টি রাসায়নিক পদার্থ নিয়ে পরীক্ষা চালান গবেষকরা। ক্যান্সারের অত্যাবশ্যক ১১টি লক্ষণ বা উপসর্গ সৃষ্টিতে এদের ভূমিকা কী তা খতিয়ে দেখার চেষ্টা করেন। পরীক্ষা শেষে তারা জানান, ৫০টি পদার্থের সংস্পর্শে থাকলে ক্যান্সারের উপসর্গ দেখা দেওয়ার ঝুঁকি থাকে, পদার্থগুলোর কাছাকাছি থাকার মাত্রা কম হলেও। আর ১৩টি পদার্থ সরাসরি ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পেছনেই ভূমিকা রাখে।

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি প্রেস প্রকাশিত বিজ্ঞান বিষয়ক সাময়িকী কারসিনোজেনেসিসে এই গবেষণা প্রকাশিত হয়েছে।

কীটনাশক, ছত্রাকনাশক, প্লাস্টিকে ব্যবহৃত রাসায়নিক, পানির বোতল, খাবার রাখার বক্স বা হ্যান্ডওয়াশ, কসমেটিকসে ব্যবহৃত পিভিসি ও পলিকার্বনেট জাতীয় পদার্থ, পেইন্টে ব্যবহৃত অগ্নিনিরোধক পদার্থ, বাড়ি নির্মাণ সামগ্রী, কাপড় ও কার্পেটের রং স্থায়ী করতে ব্যবহৃত পদার্থগুলো এর মধ্যে অন্যতম।

গবেষক দলের সদস্য ও লন্ডনের ব্রুনেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হামেদ ইয়াসেই বলেন, 'ক্যান্সার সৃষ্টিকারী উপাদানগুলো থেকে যাতে দূরে থাকা যায় সে লক্ষ্যে আমরা এই গবেষণা করেছি। প্রতিদিনই আমাদের এ ধরনের পদার্থের কাছাকাছি আসতে হয়।'

এসব পদার্থ দেহের ভেতর প্রবেশ করলে তা থেকে ক্যান্সার হতে পারে বলে গবেষকরা দেখিয়েছেন। তবে এই পদার্থগুলোর কারণেই যে ক্যান্সার হবে তা বলেননি গবেষকরা। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।

/এফএস/


 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।