বিকাল ০৫:৪৪ ; বৃহস্পতিবার ;  ২১ নভেম্বর, ২০১৯  

পাবনায় মানবপাচারকারী দলের প্রধান গ্রেফতার

প্রকাশিত:

পাবনা প্রতিনিধি॥

পাবনায় মানবপাচারকারী দলের প্রধান আব্দুল বাছের মল্লিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে শনিবার রাতে সুজানগরের উপজেলার উদয়পুর বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

বাছের মল্লিক উদয়পুর গ্রামের মৃত আব্দুল জব্বার মল্লিকের ছেলে। 

সুজানগর থানার ওসি হাবিবুর রহমান জানান, ভায়না গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে আলহাজ উদ্দিন (২৫), আমজাদ হোসেনের ছেলে মিলন (২৪), খয়রান গ্রামের আমিনুদ্দিনের ছেলে নাজমুল হোসেন (২৫) ও আব্দুস শুকুরের ছেলে বাবুল হোসেন বাবু (২২) মানবপাচারকারীদের খপ্পরে পড়ে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে মিয়ানমার উপকূল  থেকে আটক হয়ে দেশে ফেরত আসে। এরপর তারা মানবপাচারকারী আব্দুল বাছের মল্লিকসহ পাঁচজনকে আসামি করে সুজানগর থানায় মামলা করেন।

তিনি আরও জানান, পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে উদয়পুর বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে বাছের মল্লিককে গ্রেফতার করে। বাকি আসামিরা খুব শিগগিরই গ্রেফতার হবে। গ্রেফতারকৃত বাছের মানবপাচারকারী দলের প্রধান বলে ওসি দাবি করেছেন।

মানবপাচারকারীদের খপ্পর থেকে প্রাণে বেঁচে আসা আলহাজ উদ্দিন জানান, বাছের মল্লিক চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজারের মানবপাচারকারীদের সঙ্গে যোগসাজসে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া পাঠানোর নামে তাদের টেকনাফ থেকে প্রথমে ট্রলারে এবং পরে জাহাজে তুলে দেয়। জাহাজে তাদের অমানসিক নির্যাতন করা হতো। পরে পাচারকারীরা বাছেরের মাধ্যমে তাদের প্রত্যেকের পরিবারের কাছ থেকে বিকাশের মাধ্যমে ৫০ হাজার থেকে দেড় লাখ টাকা করে মুক্তিপণ আদায় করে। এরপরও তাদের মালয়েশিয়া কিংবা বাড়িতে না পাঠিয়ে উল্টো তাদের ওপর নির্যাতন চালানো হয়। একপর্যায়ে ২২ মে তারা মিয়ানমার উপকূলে নৌবাহিনীর হাতে আটক হয়। মিয়ানমার সরকার তাদের কক্সবাজার পুলিশের মাধ্যমে বাড়িতে পাঠান।

/বিএল/এএইচ /

 

 

***বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।